হাজার টাকার বিনিময়ে বোনকে তুলে দেন ধর্ষকের হাতে!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৭ ১৪২৭,   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

হাজার টাকার বিনিময়ে বোনকে তুলে দেন ধর্ষকের হাতে!

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৫:০৮ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

অভিযুক্ত চান্দু মিয়া গ্রেফতার

অভিযুক্ত চান্দু মিয়া গ্রেফতার

চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানার সুপারিওয়ালাপাড়া এলাকায় কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া মূল অভিযুক্ত চান্দু মিয়া আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম খাইরুল আমীনের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তিনি।

জবানবন্দিতে চান্দু মিয়া জানান, এক হাজার টাকার বিনিময়ে ওই কিশোরীকে চান্দু মিয়ার বাসায় দিয়ে যান তারই চাচাতো বোন স্মৃতি ও তার বান্ধবী নুরী আক্তার। এরপর কৌশলে সটকে পড়েন তারা।

রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ পেয়ে ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত নুরী আক্তারসহ তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতার অন্যরা হলেন- নুরী আক্তারের স্বামী মো. অন্তর ও রাজিব হোসেন।

তবে ঘটনার পর থেকে পলাতক ছিলেন চান্দু মিয়া। মঙ্গলবার ভোরে নগরীর পতেঙ্গা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ডবলমুরিং থানার এএসআই মিঠু দাশ ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছিলেন চান্দু মিয়া। অভিযান চালিয়ে পতেঙ্গায় এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর আদালতে পাঠালে সেখানে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তিনি।

জানা গেছে, ফেনী থেকে নগরীর আগ্রাবাদ সিডিএ এলাকায় চাচার বাসায় বেড়াতে আসেন ওই কিশোরী। সেখান থেকে চান্দু মিয়ার বাসায় গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন তিনি। পরে বাসায় ফিরে বিষয়টি চাচাকে জানালে ওই রাতেই তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে ডবলমুরিং থানায় মামলা দায়ের করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম