টাকা ছাড়া মিলছে না মার্কশিট-প্রশংসাপত্র 

ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৭,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

টাকা ছাড়া মিলছে না মার্কশিট-প্রশংসাপত্র 

ভাঙ্গুরা (পাবনা) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৩৩ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১০:৩৩ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়-ফাইল ফটো

দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়-ফাইল ফটো

সদ্য কলেজে ভর্তির সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীরা মার্কশিট ও প্রশংসাপত্র তুলতে গেলেই প্রধান শিক্ষক জনপ্রতি ২০০-৩০০ টাকা দাবি করছেন। দাবিকৃত না দিলে মিলছে না মার্কশিট ও প্রশংসাপত্র। এ অভিযোগ উঠেছে পাবনার ভাঙ্গুরার দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক  আফসার আলী রানার বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় উপজেলার দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ভুক্তভোগী ছয় শিক্ষার্থী বৃহস্পতিবার ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তারা ইউএনওর কাছে প্রশংসাপত্র ও মার্কশিট প্রদানে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

২০১৯ সালে দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে সুরুজ, মেহেদী হাসান, স্বাধীন, মিজান, রাজিব ও জনি নামে ছয় শিক্ষার্থী ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। তারা অভিযোগে জানিয়েছেন, টাকা ছাড়া মার্কশিট ও প্রশংসাপত্র আনতে গেলে প্রধান শিক্ষক দেন না। তাদের দিনের পর দিন ঘোরাচ্ছেন প্রধান শিক্ষক।

এক শিক্ষার্থী জানায়, কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়ে মার্কশিট ও প্রশংসাপত্রের জন্য সে বিদ্যালয়ে যায়। এ সময় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফসার আলী রানা তার কাছ থেকে ৩০০ টাকা আদায় করেন। টাকার রসিদ চাইলে উল্টো ‘বেয়াদব’ বলে বকা দেন তিনি। এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

কয়েকজন অভিভাবক বলেন, করোনাকালে আর্থিক সংকট থাকলেও বাধ্য হয়ে প্রধান শিক্ষকের কথা মতো টাকা দিয়ে সন্তানদের মার্কশিট ও প্রশংসাপত্র নিয়েছি।

এ বিষয়ে জানতে দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফসার আলী রানার মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

ভাঙ্গুড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাইফুল আলম বলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মার্কশিট ও প্রশংসাপত্র বিতরণে টাকা নেয়ার বিষয়টি তিনি শুনেছেন। বিষয়টি ইউএনওর সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

ভাঙ্গুড়ার ইউএনও সৈয়দ আশরাফুজ্জামান জানান, তার কাছে কয়েকজন শিক্ষার্থী অভিযোগ দিয়েছে। তিনি এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ