‘আমি এক বছর মুরগির মাংস ও পোলাও খাইনি স্যার’

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘আমি এক বছর মুরগির মাংস ও পোলাও খাইনি স্যার’

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:৪০ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ত্রিশালের ইউএনও মো. মোস্তাফিজুর রহমান ও ৯০ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধ (ছবি: সংগৃহীত)

ত্রিশালের ইউএনও মো. মোস্তাফিজুর রহমান ও ৯০ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধ (ছবি: সংগৃহীত)

‘স্যার আমি এক বছর মুরগির মাংস ও পোলাও খাইনি।’ তার এ কথা শুনে অবাক হলেন ইউএনও। এরপর তিনি ৯০ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধকে তার সামনের চেয়ারে বসিয়ে বললেন, চাচা আপনি একটু অপেক্ষা করুন। আমি ব্যবস্থা করছি।

বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহের ত্রিশাল ইউএনও মোস্তাফিজুর রহমানের অফিসকক্ষে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাৎক্ষণিকভাবে ইউএনও অফিসের একজনকে মুরগি ও পোলাও’র চালসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনে আনার অনুরোধ করা হয়।

আরো পড়ুন: নতুন জুতার জন্য পা কেটে ফেলতে হচ্ছে দিনমজুর মোকছেদের

জানা গেছে, বাজার করে আনার পর ইউএনও ওই বৃদ্ধকে দেন এবং নিজে অফিস থেকে নেমে তাকে রিকশায় উঠিয়ে দেন। এ সময় ওই বৃদ্ধ আনন্দে কেঁদে ফেলেন।

ত্রিশালের ইউএনও মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ওই বৃদ্ধের এমন কথা শুনে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়ি। হারিয়ে ফেলেছিলাম কথা বলার শক্তি। জানি না কতজন মানুষ এভাবে দিন কাটাচ্ছে। তবে একজন বাবার মুখে কিছু খাবার তুলে দিতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করছি। কিন্তু উনার নাম-ঠিকানা জানা হয়নি। খোঁজ নিয়ে উনার পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবেন বলেও জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম