বড় বোনের মোবাইলে ছোট বোনের আপত্তিকর ছবি পাঠালো যুবক, অতঃপর...

ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৭,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

বড় বোনের মোবাইলে ছোট বোনের আপত্তিকর ছবি পাঠালো যুবক, অতঃপর...

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৫৩ ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:৫৫ ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

জগন্নাথপুর থানা, সুনামগঞ্জ

জগন্নাথপুর থানা, সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে এক তরুণীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে মোবাইলে আপত্তিকর ছবি তুলে পরিবারের কাছে টাকা দাবি করেছে সুয়েবুর রহমান মুন্না নামে এক যুবক। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী তরুণীর করা পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার সুয়েবুর রহমান মুন্না ওই উপজেলার ইসহাকপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের জিয়াউর রহমানের ছেলে। তার মোবাইলে ওই তরুণীর আপত্তিকর ছবি পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার তাকে সুনামগঞ্জ কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, ২০১৫ সালে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার সময় তাকে জোরপূর্বক অটোরিকশায় করে অজ্ঞাত একটি স্থানে নিয়ে যায় সুয়েবুর রহমান মুন্না। এরপর নিজের মোবাইলে ওই তরুণীর আপত্তিকর ছবি তোলে। দুই-তিন ঘণ্টা পর আবার তাকে বাড়ির সামনে ফেলে চলে যায় মুন্না। ঘটনার এক সপ্তাহ পর ওই তরুণীর বড় বোনের মোবাইলে একটি আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে টাকা দাবি করে মুন্না। পরে তার পরিবার ২০ হাজার টাকা দিয়ে ছবিটি মোবাইল থেকে মুছে ফেলার দফারফা করে।

ওই তরুণী আরো জানান, পাঁচ বছর পর আবারো ওই তরুণীর বড় বোনের মোবাইলে কল করে টাকা দাবি করে মুন্না। কিন্তু তার পরিবার রাজি না হওয়ায় ১০ সেপ্টেম্বর তাকে দেখে গালাগাল ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার পাশাপাশি আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় মুন্না। এ ঘটনায় ২০ সেপ্টেম্বর তার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন ওই তরুণী।

জগন্নাথপুর থানার এসআই রাজিব রহমান জানান, ভুক্তভোগী তরুণীর করা মামলায় সুয়েবুর রহমান মুন্নাকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আপত্তিকর ছবি সংবলিত মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর