স্বামীর সান্নিধ্যের আগেই লাশ হলো বালিকাবধূ

ঢাকা, সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১১ ১৪২৭,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

স্বামীর সান্নিধ্যের আগেই লাশ হলো বালিকাবধূ

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৫৬ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

বালিকাবধূ আছিয়ার মৃত্যুর খবরে ভিড় জমান এলাকাবাসী

বালিকাবধূ আছিয়ার মৃত্যুর খবরে ভিড় জমান এলাকাবাসী

তিন মাস আগে মালদ্বীপ প্রবাসী আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে পারিবারিকভাবে মোবাইলে বিয়ে হয় আছিয়ার। কিন্তু স্বামীর সান্নিধ্যে পাওয়ার আগেই লাশ হতে হলো বালিকাবধূ আছিয়াকে।

রোববার ভোরে শ্বশুরবাড়িতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে আছিয়া খাতুন। ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানাধীন টাঙ্গাব ইউপির দক্ষিণ টাঙ্গাব গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পাগলা থানা পুলিশ।

আরো পড়ুন: শরীয়তপুরে বোমা ফাটিয়ে পেঁয়াজ লুট

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পাগলা থানাধীন টাঙ্গাব ইউপির দক্ষিণ টাঙ্গাব গ্রামের আবু সাঈদ পরিবার নিয়ে ঢাকায় বসবাস করেন। তবে মেয়ে আছিয়া খাতুন একই গ্রামে নানার বাড়িতে থেকে স্থানীয় জামির হাজি দাখিল মাদরাসায় নবম শ্রেণিতে পড়তো। তিন মাস পূর্বে প্রতিবেশী আব্দুর রশিদের ছেলে মালদ্বীপ প্রবাসী আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে পারিবারিকভাবে মোবাইলে আছিয়ার বিয়ে হয়।

শনিবার আশরাফুলের পরিবারের লোকজন আছিয়া খাতুনকে তাদের বাড়িতে নিয়ে যান। শনিবার দিবাগত ভোরে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না বেঁধে ফাঁস দেয় সে। খবর পেয়ে পাগলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আছিয়ার লাশ উদ্ধার করে।

আরো পড়ুন: ২২ লাখ টাকার প্রণোদনা পাচ্ছেন তিন হাজার কৃষক

পাগলা থানার ওসি শাহীনুজ্জামান খান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম