সাভারের গাঙচিল বাহিনীর প্রধান অস্ত্র-মাদকসহ গ্রেফতার

ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৯ ১৪২৭,   ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সাভারের গাঙচিল বাহিনীর প্রধান অস্ত্র-মাদকসহ গ্রেফতার

সাভার প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:০৪ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকার সাভারের গাঙচিল বাহিনীর প্রধান সালাউদ্দিনকে অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ সময় তার দুই সহযোগিকেও গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার ভোরে আমিনবাজারের সালেহপুর এলাকায় অভিযান তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব-৪।

এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগজিন, দুই রাউন্ড গুলি, ১৯০ গ্রাম হেরোইন, ৫০০ ইয়াবা এবং দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব সূত্র জানায়, ২০০০ সালে উত্থান গাঙচিল বাহিনীর। বেশিরভাগ সময় পানিবেষ্টিত এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করায় এর নাম দেয়া হয় গাঙচিল বাহিনী। এ বাহিনী মূলত আমিনবাজার, গাবতলী, ভাকুর্তা, কাউন্দিয়া, বেড়িবাধ, কেরানীগঞ্জ ও রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় চাঁদাবাজি, মাদক কারবারি, ডাকাতি, খুন ইত্যাদি কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিল। 

২০০২ সালে সাভার থানার একজন এসআইকে হত্যা, ২০০৭ সালে দুইজন র‌্যাব সদস্যকে হত্যা, দিয়াবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির অস্ত্রলুট এবং আমিনবাজার এলাকায় নৌ-টহল দলের অস্ত্রলুট এর সঙ্গে জড়িত ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

র‌্যাব আরো জানায়,  তুরাগ ও বুড়িগঙ্গা নদীর বালুভর্তি ট্রলার ও ইটের কার্গোতে ডাকাতি, আমিন বাজার এলাকার শতাধিক ইটভাটা থেকে নিয়মিত চাঁদাবাজি করতো। চাঁদাবাজি, খুন, ডাকাতি, মাদক কারবারি, ছিনতাইসহ তুরাগ আর বুড়িগঙ্গা নদীতে ছিল তাদের অধিপত্য।

র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র এএসপি জিয়াউর রহমান জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা সবসময় নদীতে ও নদীর তীরবর্তী এলাকায় তাদের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করত এবং বেশিরভাগ সময় নদীপথে যাতাযাত করতো বলে স্বীকার করেছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের পর আসামিদের সাভার থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে