ধর্ষিতা ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা, ধর্ষকের স্ত্রীর দা‌বি স্বামী নি‌র্দোষ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১৪ ১৪২৭,   ১১ সফর ১৪৪২

ধর্ষিতা ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা, ধর্ষকের স্ত্রীর দা‌বি স্বামী নি‌র্দোষ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৫৩ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১১:০৯ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

শরীয়তপুর সদর উপজেলায় কয়েক দফা ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক কিশোরী। বর্তমানে সে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এ ঘটনায় সোমবার রাতে ওই কিশোরীর মা পালং মডেল থানায় মামলা করেছেন।

জানা গেছে, ওই কিশোরী রুদ্রকর ইউপিতে তার নানাবাড়িতে থেকে পড়ালেখা করতো। ৭ মার্চ রাতে প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে গেলে ওই কিশোরীকে স্থানীয় মৃত মন্নান সরদারের ছেলে মো. সালামত সরদার ধর্ষণ করে। এরপর বেশ কয়েকবার ওই ছাত্রীকে ফুসলিয়ে ধর্ষণ করে সালামত।

৮ সেপ্টেম্বর তার শারীরিক পরিবর্তনের বিষয়ে জানতে চান তার মা। পরে সে সব ঘটনা মায়ের কাছে খুলে বলে। ছাত্রীটির মা সোমবার রাতে পালং মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সালামত সরদারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছে সালামত।

কিশোরীর মা বলেন, বিষয়টি নিয়ে যাতে আমরা বাড়াবাড়ি না করি, সেজন্য সালামত আমাকে ও আমার মেয়েকে হুমকি দিয়েছে। বাধ্য হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেছি। এতটুকু মেয়ের যে সর্বনাশ করেছে, আমি তার বিচার চাই।

তবে সালামত সরদারের স্ত্রী মাকসুদা বেগম বলেন, আমার স্বামী নির্দোষ। আমার স্বামীকে ফাঁসানো হয়েছে। তবুও যদি আমার স্বামী ওই কাজ করে থাকে তার শাস্তি হোক।

পালং মডেল থানার ওসি মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, পরিবারের কাছ থেকে জেনেছি মেয়েটি ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তবে মঙ্গলবার মেডিকেল পরীক্ষার জন্য তাকে সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছি। রির্পোট হাতে পেলে বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস