স্ত্রী-বাড়িওয়ালাসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

ঢাকা, বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৭ ১৪২৭,   ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

স্ত্রী-বাড়িওয়ালাসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

নরসিংদী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৪ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০  

তিনজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের

তিনজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের

নরসিংদীর শিবপুরে পারিবারিক কলহের জেরে বাড়িওয়ালাসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে।

সোমবার সকালে নিহত বাড়িওয়ালার ছেলে শাহীন আলম বাদী হয়ে গ্রেফতার ভাড়াটিয়া বাদল মিয়াকে প্রধান আসামি করে এ মামলা করেন।

মামলার এজহার সূত্রে জানা গেছে, কাঠমিস্ত্রি বাদল মিয়া স্ত্রীসহ শিবপুরের কুমড়াদি গ্রামে তাজুল মিয়ার বাড়িতে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন। স্ত্রী নাজমা বেগমের সঙ্গে পারিবারিক বিষয় নিয়ে তার কলহ চলছিল। রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে নাজমার ঘর থেকে চেঁচামেচির শব্দ পাওয়া যায়। শব্দ পেয়ে বাড়িওয়ালা তাজুল ইসলাম, তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও নাজমা বেগমের ছেলে নাদিমসহ আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসেন।

আরো পড়ুন: সরবরাহে ঘাটতি, পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত

এ সময় তারা বাদল মিয়াকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। এতে তিনি আরো ক্ষিপ্ত হয়ে বাড়িওয়ালা ও উপস্থিত লোকজনকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। এতে পাঁচজন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে আনার পর নাজমা ও মনোয়ারা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। অবস্থার অবনতি হলে তাজুল ইসলামকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

পরে ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি মারা যান। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ঘটনার পরপরই ঘাতক বাদল মিয়াকে পুলিশ গ্রেফতার করে চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

শিবপুর থানার ওসি(তদন্ত) আবুল কালাম বলেন, ওই ঘটনায় বাড়িওয়ালার ছেলে শাহীন আলম বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। গ্রেফতার বাদল মিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে আদালতে পাঠানো যায়নি। চিকিৎসা শেষে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম