বকশীগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ঢাকা, শনিবার   ১৯ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৭ ১৪২৮,   ০৭ জ্বিলকদ ১৪৪২

বকশীগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

জামালপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:২৭ ১৩ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ১৫:২৯ ১৩ জুলাই ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

উজানের পাহাড়ি ঢলে জামালপুরে যমুনার পানি বিপদসীমার ৩১ সেন্টিমিটার ওপরে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে প্লাবিত হয়েছে বকশীগঞ্জের নিম্নাঞ্চল। এরআগে সরিষাবাড়ি, মাদারগঞ্জ, মেলান্দহ, ইসলামপুর, মাদারগঞ্জ, দেওয়ানগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

যমুনার বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক গেজ রিডার আব্দুল মান্নান শনিবার সকালে জানিয়েছেন, এ পয়েন্টে স্বাভাবিক পানির উচ্চতা হল ১৯.৫০।

অন্যদিকে সরজমিনে দেখা গেছে, অতি বৃষ্টি ও বন্যার পানি বাড়ার ফলে উপজেলার চিনাডুলী ইউনিয়নের বলিয়াদহ ডেপরাই প্যাচ আগাড়ী ব্রিজের এপ্রোচ ডেবে গেছে। এতে করে এলাকাবাসী সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার শংকা রয়েছে। পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের রিকশা, ভ্যান, অটোরিকশা, পিকআপ, ভটভডি ও নছিমন চালকরা বেকার হয়ে পড়বে।

চিনাডুলী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আ. মোতালেব জানান- চিনাডুলী ইউনিয়নের দেওয়ানপাড়া, পশ্চিমপাড়া, চর নন্দনেরপাড়া, বীর নন্দনেরপাড়া, শিংভাঙ্গা গ্রামের প্রায় ৮-১০ হাজার মানুষ এরইমধ্যে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। এসব এলাকায় সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। পানিবন্দী মানুষের খোঁজখবর রাখতে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

জেলার বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখার কথা বলেছেন ডিসি আহমদ কবীর। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত জামালপুরের বন্যা ভয়াবহ রূপ ধারন করেনি। দুপুরে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠক করে দুর্গত এলাকার জন্য ত্রাণ বরাদ্দ দেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম