টয়লেট টিস্যু, কেক কিংবা ভেড়ার পশম কিছুই বাদ পড়েনি বিয়ের পোশাকের থিমে

ঢাকা, রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৪ ১৪২৮,   ১০ সফর ১৪৪৩

টয়লেট টিস্যু, কেক কিংবা ভেড়ার পশম কিছুই বাদ পড়েনি বিয়ের পোশাকের থিমে

সাতরঙ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৪৭ ১৩ জুলাই ২০২১   আপডেট: ১৭:২২ ১৩ জুলাই ২০২১

অদ্ভুত সব বিয়ের পোশাক

অদ্ভুত সব বিয়ের পোশাক

বিয়ে সব মানুষের জীবনেই একটি বিশেষ দিন। এই দিনটির জন্য বর কনের থাকে নানান পরিকল্পনা। বিয়ের পোশাক কেমন হবে, কী রং, কোন ডিজাইনারের পোশাক পরবেন না নিয়ে নানান জল্পনা কল্পনা। তবে বিশেষ দিনটিকে আরো বিশেষ করতে অভিনব সব পরিকল্পনা মাথায় আসে অনেকের। নিজেকে স্বতন্ত্র করে তুলতে অনেক সময় বিয়ের কনেরা হাস্যকর কিংবা ভয়ঙ্করও হয়ে ওঠেন।

বিয়ের দিনে নিজেকে গথ বাঁধা ছকে না ফেলে এনেছেন নতুনত্ব। সাদামাটা বিয়ের পোশাক একেবারেই পছন্দ ছিল না এক নারীর। তাই তো নিজের বিয়েতে সাদার বদলে অর্ডার দিয়ে ফুলছাপ পোশাক বানিয়েছেন তিনি। পোশাকের সঙ্গে মিল করে নিজের চুলেও নীল রং করে নিয়েছিলেন।

বিয়ের সাদামাটা পোশাকে ফুলের জলছাপ করিয়ে নিয়েছিলেন নিজেকে ‘হট’ লাগতে ইনি আবার নিজের পোশাকেই ‘আগুন’ ধরিয়ে দিয়েছেন। সাদার উপর কেমন আগুনের ফুলকি ঝরে পড়ছে দেখছেন তো?

বিয়ের জন্য সাদা গাউনে আগুনের ফুল্কি একে নিয়েছিলেন তিনি বহু বছর ধরেই বিয়ের পোশাকের সঙ্গে যুক্ত দীর্ঘ অংশ নারীমহলে খুবই জনপ্রিয়। প্রিন্স ডায়ানার আইকনিক বিয়ের পোশাক এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। এই নারী আবার আরও কয়েক ধাপ এগিয়ে গিয়েছেন। এমন পোশাক বানিয়েছেন যা সামলাতে মনে হয় অর্ধেক নিমন্ত্রিতকেই হাত লাগাতে হবে। 

পোশাক সামলাতে মনে হয় অর্ধেক নিমন্ত্রিতকেই হাত লাগাতে হয় ব্রাইডসমেডস-দের সঙ্গে মিলিয়ে কনের পোশাক বানানোর রীতি তো দেখেছেন। ভেড়ার সঙ্গে মিলিয়ে পোশাক বানাবেন কেউ? এই নারী তো খুশি মনে বানিয়েছেন। পাশে হেঁটে যাওয়া ভেড়ার লোম দিয়েই নিজের পোশাক তৈরি করিয়েছেন।

ভেড়ার লোম দিয়ে তৈরি করা হয় পুরো পোশাকটি বিশ্বের সবচেয়ে মিষ্টি কনে! এর পোশাকও বানানো হয়েছে কেক দিয়েই। তবে আগের কেক পোশাক থেকে একটু আলাদা এটি। আগের ক্ষেত্রে পোশাকের থরে থরে সাজানো ছিল কাপ কেক। আর এ ক্ষেত্রে পুরোটাই কেক।

বেলুন দিয়ে নইজের বিয়ের পোশাকটি বানিয়েছিলেন ইনি আবার বিয়ে করতে চেয়েছিলেন ফুরফুরে মেজাজে। চাপমুক্ত এবং হালকা মনে। ওই দিন এতটাই হালকা হয়েছিলেন যে উড়েও যেতে পারতেন! কারণ তার পুরো পোশাকই বানানো হয়েছিল বেলুন দিয়ে।

স্বামী-স্ত্রী দু’জনে যখন ‘শ্রেক’ সিনেমার ভক্তস্বামী-স্ত্রী দু’জনে যখন একই সিনেমার ভক্ত হন তার পরিণতি কী হয়? ঠিক যেমন পাশের ছবিতে রয়েছে। দু’জনেই আসলে ‘শ্রেক’ সিনেমার ভক্ত। তাই ছবির চরিত্রের মতো নিজেদের শরীরও সবুজ রং করে ফেলেছেন।

নিজে পরীদের মতো সেজেছেন আর স্বামীকেও সাজিয়েছেন রাজপুত্রর মতো ছোটবেলায় পরীদের গল্প শুনতে আমরা সকলেই ভালবাসতাম। সেই ভালোবাসা থেকে নিজে পরীদের মতো সেজেছেন আর স্বামীকেও সাজিয়েছেন। পরী হওয়ার স্বপ্ন যেন পূর্ণ হল তার।
 টয়লেট পেপার দিয়ে তৈরি বিয়ের পোশাক
ছবিতে দেখে বোঝার উপায় নেই। এই পোশাক পুরোটাই তৈরি হয়েছে টয়লেট পেপার দিয়ে।

স্ত্রীর শখ মেটাতে বেচারা স্বামীর শ্বাসরোধ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিলহবু স্ত্রীর শখ মেটাতে বেচারা স্বামীর শ্বাসরোধ হয়ে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। স্ত্রী চেয়েছিলেন পরীরাজ্যের রাজকন্যা হবেন। সে রকমই পোশাক বানিয়েছেন তিনি। তার ফল কী হয়েছিল এক বার দেখে নিন।

পুরো পোশাকটাই তৈরি হয়েছে অ্যালুমিনিয়াম দিয়েছবিতে যে পোশাকটি দেখছেন সেটি কী দিয়ে তৈরি করা হয়েছে বলুন তো? পুরোটাই তৈরি হয়েছে অ্যালুমিনিয়াম দিয়ে! বিয়ের দিন নিজেকে স্বতন্ত্র করে তুলতে সত্যিই প্রচুর মাথা খাটাতে হয়েছে তাঁকে। শুধু একটাই প্রশ্ন, এই পোশাক পরে ঘরের বাইরে থাকলেন কী করে?

মনের মতো সঙ্গী খুঁজে না পেয়ে নিজেই সেজেছেন এই রূপে

ইনি আবার বিয়ের জন্য মনের মতো মানুষ খুঁজে পাননি। তাই নিজেই নিজেকে বিয়ে করে বসেছেন। তার শরীরের বাঁ দিকটা নারী এবং ডান দিকটা পুরুষের মতো সাজিয়ে তুলেছিলেন বিয়ের দিন।

খিদে পেলে নিজের কেকের পোশাক কেটে খাচ্ছেন কনে কনের পোশাকই যখন ওয়েডিং কেক! পাশের ছবিতে ভাল করে দেখুন পোশাকটি শুধু কেকের মতো দেখতেই নয়, সেটা সত্যিই কেক। খিদে পেলে কনেও যখন তখন এক টুকরো নিয়ে খেয়েও ফেলতে পারেন।

পরচুলা দিয়ে তৈরি এই বিয়ের পোশাকটি শুধু নকল চুল লাগিয়ে অনন্য হয়ে ওঠেননি, তার পোশাকও তৈরি হয়েছে নানা রঙের পরচুল দিয়েই।

 নিজেই ওই দিন ক্যাকটাস হয়ে গিয়েছিলেনগাছ ভালোবাসেন। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি শখ ক্যাকটাসে। ক্যাকটাসের প্রতি ভালোবাসা দেখাতে নিজেই ওই দিন ক্যাকটাস হয়ে গিয়েছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে