রহস্যময় জমজ, দূরে বাস করেও স্বামী-সন্তানের নাম একই

ঢাকা, বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১,   বৈশাখ ১ ১৪২৮,   ০১ রমজান ১৪৪২

প্রথম পর্ব

রহস্যময় জমজ, দূরে বাস করেও স্বামী-সন্তানের নাম একই

সাতরঙ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:২১ ১২ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১২:০৮ ১২ ডিসেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জমজ দুই বোন হঠাৎ করেই হারিয়ে যায়। এর বহুবছর পর তাদের আকস্মিকভাবে দেখাও হয়ে যায়। তাদের দেখা হওয়ার পর নিজেদের দেখে তো তারা অবাক! শুধু তারা দেখতেই একরকম তা কিন্তু নয়। 

আরো পড়ুন: চুলের বিনুনি যখন গোপন মানচিত্র, ন্যাড়া মাথায় পাঠানো হত সংকেত

তাদের চলন, কথা-বার্তা এমনকি তাদের অভ্যাসগুলোও এক। আরো অবাক করা বিষয় হলো, এই বোনেরা জানতে পারে তাদের স্বামীর নামও একই। এমনকি তাদের সন্তানের নাম পর্যন্তও একই। 

আরো পড়ুন: মৃত্যুর ৭৫ বছর পরও ছিলেন ধ্যানমগ্ন

ভাবছেন কি? এটি কোনো সিনেমার গল্প। একদমই নয়, সত্যি এমন অনেক রহস্যময় জমজদের গল্প বাস্তবেই রয়েছে। তাদের ঘটনা নিয়েই আজকে সাতরঙের আয়োজন- 

জেমস লুইস ও জেমস স্প্রিঞ্জারজেমস লুইস ও জেমস স্প্রিঞ্জার

তাদের দুইজনের নামই জেমস। আর তারা কখনোই জানত না তাদের জমজ ভাই রয়েছে। ৩৯ বছর পর তাদের প্রথম দেখা হয়। জেনে অবাক হবেন, তারা যখন ছোট ছিল তখন তাদের দুইটি কুকুর ছিল। এই কুকুর দুইটির নাম ছিল টয়। 

আরো পড়ুন: ৭২টি বিষাক্ত সাপের সঙ্গে তিনদিন এক খাঁচায় সময় কাটিয়ে বিশ্ব রেকর্ড

এই দুই জমজ ভাইয়ের রয়েছে একটি বদঅভ্যাস। তারা দু’জনেই নখ কামড়াতো। এমনকি তারা একই ব্র্র্যান্ডের সিগারেটও খায়। একই মডেলের গাড়ি চালাত। আরো রহস্যময় বিষয় হলো, এই জমজ দুই ভাই একই সেক্টরে কাজ করত। এগুলোকে কাকতালীয় বলা যেতেই পারে! 

আরো পড়ুন: আজব সব পানীয়! রয়েছে কুমারীর থুতু, গোমূত্রসহ ব্যাঙের জুসও

তবে অবাক করা বিষয় হলো, তাদের প্রথম স্ত্রীর নাম ছিল লিন্ডা। ডিভোর্সের পর তারা যখন দ্বিতীয় বিয়ে করেন তখন তার ওই স্ত্রীর নামও ছিল বেটি। এমনকি এই জমজ দুই ভাইয়ের ছেলেদের নামও রাখা হয় জেমস অ্যালেন। তবে তার মধ্যেও সামান্য অমিল হলো এক ভাইয়ের ছেলের নামের বানানে দুইটি ‘এ’ ছিল বেশি। 

অ্যামান্ডা ডানফোর্ড ও কেটি বেনেট

অ্যামান্ডা ডানফোর্ড ও কেটি বেনেটতাদের জন্ম হয়েছিল দক্ষিণ কোরিয়ায়। তবে তারপরই তারা আলাদা হয়ে যায়। এরপর তাদেরকে ভিন্ন দুইটি পরিবার দত্তক নেই। মার্কিন দুই দম্পতির ঘরে যায় জমজ দুই বোন। কেটির ছোটবেলা থেকেই ঘোড়া খুব পছন্দ করতেন। 

অন্যদিকে অ্যামান্ডার ছেলেবেলা কেটেছে ঘোড়ার পিঠে চড়ে ও ঘোড়ার সঙ্গে খেলে। তারা যখন হাই স্কুলে পড়ত, তখন একই বছরে দু’জনেই ফেল করেন। এমনকি ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রথম পরীক্ষাতেও তারা একই বছরে একসঙ্গে অকৃতকার্য হন। 

তারা দু’জনেই খুব দ্রুত খাবার খেতে পারে। এই জমজ দুই বোন একসঙ্গে না থাকলেও তারা মানসিকভাবে একইরকম ছিলেন। আরেকটি উদাহরণ হলো, তারা দু’জনেই বাথরুমে সবসময় তিনটি করে টিস্যু রাখতেন। আরো অগণিত অভ্যাস কাকতালীয়ভাবে মিলে যায় তাদের সঙ্গে। 

পলা বেমস্টেইন ও এলিসি চেইন

পলা বেমস্টেইন ও এলিসি চেইনএই জমজ দুই বোনও জন্মের পর থেকে আলাদা হয়ে যায়। নিজেদের বাবাকে খুঁজতে গিয়েই তাদের একজনের সঙ্গে আরেকজনের দেখা হয়। তাও আবার দীর্ঘ ৩৫ বছর পর। পলা ও এলিসির জন্ম নিউ ইয়র্কে। 

তাদের দু’জনের মধ্যে এতোটাই মিল ছিল যে, তাদের একই ওষুধে এলার্জিও ছিল। এমনকি দু’জনেই ফিল্ম নিয়ে পড়ালেখা করেছেন। তারা দু’জনেই একটি করে সিনেমাও তৈরি করেছেন স্ব-স্ব ক্ষেত্রে। তাদের মধ্যে শুধু একটিই অমিল ছিল। আর তা হলো পলা ছিলে বিবাহিত আর এলিসি তখনো বিয়ে করেননি। 

বারবারা হার্বার ও ডেফনি গুডশিপ

বারবারা হার্বার ও ডেফনি গুডশিপএই জমজ দুই বোনের মা তাদের জন্মের পরই মৃত্যুবরণ করেন। এরপর তারা আলাদা হয়ে যায়। তবে ভাগ্যগুণে নিজেদের পরিবারকে বড় হয়ে খুঁজতে এসে দেখা হয়ে যায় জমজ দুই বোনের। তাদের মধ্যে আগের জমজদের মতোই সব বিষয়ে মিল ছিল। এরা দু’জনই কাকতালীয়ভাবে ১৪ বছর বয়সে পড়ালেখা ছেড়ে দেয়। 

দু’জনই ১৬ বছর বয়সে বিয়ে করেন। এরপর একই মাসে তাদের গর্ভপাত হয়। পরবর্তীতে অবশ্যই দুইটি ছেলে ও একটি মেয়ের মা হন দুই জমজ বোন। তারা দুই বোনই কোল্ড কফি খেতে খুবই পছন্দ করতেন। আবার দু’জনই রক্ত ও উচ্চতা দেখলে ভয় পেতেন। এমনকি তাদের দু’জনেরই হার্ট ও থাইরয়েডের সমস্যা ছিল। 

এমিলি ফক ও লিন ব্যাকম্যান

এমিলি ফক ও লিন ব্যাকম্যানএই জমজ দুই বোনের জন্ম হয় ইন্দোনেশিয়ায়। তবে জন্মের পর থেকেই তারা আলাদা হয়ে যান। কাকতালীয়ভাবেই সুদানের দুই পরিবার দত্তক নেয়। প্রায় ২৫ মাইল দূরেই তারা আলাদা আলাদা পরিবারে বেড়ে ওঠে। তখনো তারা কেউই আরেক বোনের সম্পর্কে জানতেন না। দীর্ঘ ৩০ বছর পর জমজ এই দুই বোনের ঠিকই একদিন দেখা হয়ে যায়। তাও আবার ইন্টারনেটের মাধ্যমে। 

এরপরই তারা অনুধাবন করতে পারেন, তাদের নিজেদের মধ্যে কতটা মিল। তারা দু’জনেই শিক্ষক ছিলেন। তাদের দু’জনের বিয়েও হয় একই দিনে। এমনকি তারা নিজেদের বিয়েতে যে গানে নেচেছিলেন সেটিও ছিল একই। ভাবা যায় এমনও কাকতালীয় ঘটনা হতে পারে। এমন আরো কয়েক জমজ ভাইবোনদের গল্প থাকছে পরের পর্বে। ডেইলি বাংলাদেশের সঙ্গেই থাকুন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস