রাজধানীতে বান্ধবীকে ভিডিও কলে রেখে আত্মহত্যা করল তরুণী!

ঢাকা, সোমবার   ০২ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

রাজধানীতে বান্ধবীকে ভিডিও কলে রেখে আত্মহত্যা করল তরুণী!

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:৩৪ ২৩ জুন ২০২১   আপডেট: ২২:৩৭ ২৩ জুন ২০২১

রুবিনা ইয়াসমিন নদী। ছবি: সংগৃহীত

রুবিনা ইয়াসমিন নদী। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীতে বান্ধবীকে ভিডিও কলে রেখে গলায় ফাঁস দিয়ে রুবিনা ইয়াসমিন নদী (২১) নামের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। 

বুধবার বিকেলে রাজধানীর শাহজাহানপুরের গুলবাগ এলাকার একটি বহুতল ভবনের সাবলেটে এ ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, নিহত ওই শিক্ষার্থী বরগুনার বেতাগী উপজেলার পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলামের বড় মেয়ে। 

রুবিনার রুমমেট ও বান্ধবী মারিয়াম বলেন, রুবিনা ও আমি একই বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী। আমরা শাহজাহানপুর মালিবাগের ৩৯১ নম্বর গুলবাগে একটি ভবনের পঞ্চম তলায় সাবলেট থাকতাম। পাশাপাশি আমরা একটি কোম্পানিতে চাকরি করতাম।

তিনি আরো বলেন, আইন বিভাগেরই আরেক শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল রুবিনার। এক পর্যায়ে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর বা অক্টোবরের দিকে বিয়েও করেন তারা। তবে বিয়ের তিন মাসের মাথায় তাদের বিচ্ছেদ হয়।

এ বিষয়ে নিহতের খালাতো বোন শরিফা সুলতানা বলেন, বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও রুবিনার প্রাক্তন স্বামী মারিয়ামের ফোনে রুবিনার সঙ্গে তার বিশেষ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও পাঠাতো। এসব নিয়ে রুবিনা মানসিকভাবে অস্থির থাকতো। 

মারিয়ম বলেন, ঘটনার দিন সকালে তিনি কাজে গেলেও রুবিনা যাননি। পরে বিকেল ৩টার দিকে তাকে ফোন করে রুবিনা জানান, তার কিছুই ভালো লাগছে না। একটু পরে ভিডিও কল দেন রুবিনা। সেখানে দেখা যায় তিনি দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না বাঁধছেন। 

তিনি আরো বলেন, আমি দ্রুত বাসায় গিয়ে দরজা ভেতর থেকে বন্ধ পাই। পরে আশপাশের লোকজনের সহযোগিতায় দরজা ভেঙে রুবিনাকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর