দেহব্যবসা করানোর ক্ষোভে বাবা-মাসহ বোনকে হত্যা করে মেহজাবিন

ঢাকা, শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ৯ ১৪২৮,   ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

দেহব্যবসা করানোর ক্ষোভে বাবা-মাসহ বোনকে হত্যা করে মেহজাবিন

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫০ ১৯ জুন ২০২১   আপডেট: ১৯:৫২ ১৯ জুন ২০২১

মেহজাবিনসহ তার বোন- ছবি: সংগৃহীত

মেহজাবিনসহ তার বোন- ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর কদমতলীতে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মা-বাবা ও বোনকে হত্যার ঘটনায় আটক মেহজাবিন ইসলাম মুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। সেই জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে এসেছে নতুন রোমহর্ষক তথ্য।

মেহজাবিনের জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে ডিএমপির ওয়ারি বিভাগের উপ-কমিশনার শাহ ইফতেখার আহমেদ জানান, মেহজাবিনের বাবা মাসুদ রানা ওমান প্রবাসী। বাবা মাসুদ রানা সেদেশে আরেকটি বিয়ে করেছেন। বাবা দেশে না থাকায় তার মা মৌসুমী তাকে (মেহজাবিন) ও তার ছোট বোনকে (নিহত জান্নাতুল) দিয়ে দেহব্যবসা করাতেন। এসব নিয়ে প্রতিবাদও করেছিল সে, কিন্তু প্রতিকার হয়নি।

পুলিশের এ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আরো জানান, মেহজাবিন জানায়, তার বিয়ে হয়ে যাওয়ার পর ছোট বোনকে দিয়ে দেহব্যবসা করাচ্ছিলেন তার মা। এর মধ্যে তার স্বামীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তুলে ছোট বোন। সব মিলিয়ে জমে থাকা ক্ষোভ থেকে পরিবারের সবাইকে হত্যার পরিকল্পনা করে মেহজাবিন।

এদিকে পুলিশ বলছে, এই রোমহর্ষক তথ্য পুলিশ গ্রহণ করেছে। এ তথ্য নিয়েও তদন্ত করা হবে। এছাড়া তিনজন মানুষকে একা মেহজাবিন হত্যা করেছে তা পুলিশের বিশ্বাস হচ্ছে না। এজন্য তার স্বামীকেও সন্দেহের বাইরে রাখা হচ্ছে না। 

কদমতলী থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর জানান, মেহজাবিনের স্বামীকে সন্দেহের বাইরে রাখা হচ্ছে না। তাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। সম্পত্তির বিষয়ও এখানে রয়েছে। তদন্তে এসবও আনা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ