স্ত্রীকে হত্যার পর দরজায় তালা মেরে সন্তানদের নিয়ে পালান স্বামী

ঢাকা, রোববার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ১১ ১৪২৭,   ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

স্ত্রীকে হত্যার পর দরজায় তালা মেরে সন্তানদের নিয়ে পালান স্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫৮ ৩ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৩:৫৯ ৩ ডিসেম্বর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীর হাজারীবাগে লোহা জাতীয় যন্ত্র দিয়ে রোকসানা আক্তার ময়না (২৮) নামের এক গৃহবধূর মাথায় আঘাত করে হত্যার অভিযোগে উঠেছে। হত্যার পর ঘরে লাশ রেখে দরজায় তালা মেরে সন্তানদের নিয়ে পালান অভিযুক্ত স্বামী। অবশেষে স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এসব তথ্য জানিয়েছেন রাজধানীর হাজারীবাগ থানার সাজেদুর রহমান।

তিনি জানান, বুধবার রাত ১০ টার দিকে স্থানীয়দের দেয়া খবরে হাজারীবাগের রায়েরবাজার এলাকায় আনোয়ার খানের বাড়ি থেকে গৃহবধূ রোকসানা আক্তার ময়নার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, অভিযুক্ত স্বামী ইউসুফ ও এক ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে পূর্ব রায়েরবাজার হাই স্কুলের পিছনে আনোয়ার খানের একতলা বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। ময়নার বাড়ি নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার বারইনগর গ্রামে। ময়না গৃহিণীর কাজ করতেন। ইউসুফ ফুসকা বিক্রি করেন।

ওসি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক দ্বন্দ্ব ও দাম্পত্য কলহের জের ধরে বুধবার সন্ধ্যায় ইউসুফ তার স্ত্রীকে লোহার হামান-দিস্তা দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ময়না। পরে বাসায় তালা মেরে ইউসুফ তার ছেলেমেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যান।

তিনি আরো বলেন, খবর পেয়ে নিহত ময়নার ভাই ফরহাদ বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন। পরবর্তীতে ওই মামলায় হাজারীবাগ এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার ভোরে ইউসুফকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরই মধ্যে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/এমকেএ