দাফনের আগে জীবিত হওয়া সেই নবজাতককে বাঁচানো গেলো না 

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১২ ১৪২৭,   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২

দাফনের আগে জীবিত হওয়া সেই নবজাতককে বাঁচানো গেলো না 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:১১ ২২ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ০০:২৫ ২২ অক্টোবর ২০২০

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

দাফনের আগে জীবিত সেই নবজাতক চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) হাসপাতালে মারা গেছে। বুধবার রাতে ঢামেক হাসপাতালের ২১১ নম্বর নবজাতক ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঢামেক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকের বরাত দিয়ে নবজাতকের বাবা ইয়াসিন মোল্লা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

মৃত্যুর আগে ওই নবজাতকের নাম রাখা হয়ে ছিল মরিয়ম।

এর আগে, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মালেঙ্গা গ্রামের সন্তান সম্ভাবনা গৃহবধূ শাহিনুরকে তার স্বামী ইয়াসিন মোল্লা গত তিনদিন আগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এসে ১১০ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। ওই ওয়ার্ডে শাহিনুর শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) ভোরের দিকে স্বাভাবিকভাবে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।

নবজাতকের স্বজনরা জানান, জন্মের পরপরই ওই নবজাতককে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। পরে ওই নবজাতককে একটি প্যাকেটে ভরে তার বাবা ইয়াসিনের কাছে হস্তান্তর করে চিকিৎসক বলেন, নবজাতকটি মৃতই জন্ম নিয়েছে। পরে ইয়াসিন মোল্লা বসিলা কবরস্থানে নবজাতকটিকে দাফনের জন্য নিয়ে গেলে হঠাৎ সে নড়ে ওঠে। পরে সেখান থেকে তিনি তাকে দ্রুত ঢামেক নিয়ে আসেন। 

ইয়াসিন মোল্লা বলেন, এটা ছিল তার দ্বিতীয় সন্তান। নয় বছর বয়সী তার আরও একটি কন্যাসন্তান আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ