কেরানীগঞ্জে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কেরানীগঞ্জে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:৩১ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ২৩:৩২ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

ঢাকার কেরাণীগঞ্জে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উপজেলার জিয়ানগর গ্রামে ঘরের মেঝে থেকে রোববার সকালে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। 

নিহত গৃহবধুর নাম ফাতেমা বেগম। তার স্বামীর নাম আব্দুল সামাদ। তিনি স্থানীয় খোলামোড়া বাজারে ডিমের ব্যবসা করেন। তাদের একমাত্র সন্তান ১২ বছরের একটি ছেলে। সে স্থানীয় মাদরাসায় থেকে পড়াশোনা করে।

নিহত ফাতেমার স্বজনরা জানান, বছর ১৫ আগে বিয়ের পর থেকে ফাতেমা জিয়ানগর গ্রামে সামাদের বাড়িতে বসবাস করছিলেন। শনিবার রাত ১টার দিকে সামাদ বাড়ি ফিরে ফাতেমার গলাকাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। তার চিৎকার শুনে এলাকাবাসী এসে পুলিশকে জানায়।

সামাদ বলেন, শনিবার সকালে তিনি ফাতেমাকে বাড়িতে একা রেখে খোলামোড়া বাজারে যান। বাসায় ফেরার আগে অনেকবার ফোন করেও তিনি ফাতেমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পানেনি। বাসায় ফিরে তার গলাকাটা লাশ ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন।

এসআই দিদার বলেন, ফাতেমাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত ফাতেমার বাবা অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে তিনি জানান।

কেরাণীগঞ্জ থানার ওসি কাজী মাঈনুল ইসলাম বলেন, পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। আশা করছি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে খুব দ্রুত হত্যাকারীকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ