শোক দিবসে ডিএমপির নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা 

ঢাকা, বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৬ ১৪২৭,   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শোক দিবসে ডিএমপির নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩১ ১৩ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৯:৫৬ ১৩ আগস্ট ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। বিশেষ করে ধানমন্ডি ৩২ ও বনানী কবরস্থান কেন্দ্রিক অনুষ্ঠান স্থল ও তার আশপাশের এলাকাগুলো ঘিরে জলে-স্থলে নেয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থ।

নিরাপত্তার অংশ হিসেবে আগামী শুক্র ও শনিবার ধানমন্ডি ৩২ ও বনানী কবরস্থান সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত হোটেল ও গেস্ট হাউজ বন্ধ থাকবে। কঠোরভাবে মনিটরিং করা হবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো। বৃহস্পতিবার ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন করেন পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।

ডিএমপির উপ-কমিশনার (মিডিয়া) ওয়ালিদ হোসেন জানান, নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা প্রত্যেকে ব্যক্তিকে হ্যান্ড মেটাল ডিটেকটর দিয়ে তল্লাশি করে আর্চওয়ের ভেতর দিয়ে প্রবেশ করতে হবে। একইভাবে বনানী কবরস্থানেও আর্চওয়ে, চেকপোস্ট থাকবে এবং সবাইকে তল্লাশির মাধ্যমে প্রবেশ করতে হবে। আগত দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য তল্লাশি, ব্লক রেইড, চেকপোস্ট এর কার্যক্রম অব্যাহত আছে। গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে এবং পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবক তো থাকবেই। 

ধানমন্ডি ৩২ ও বনানী কবরস্থান কেন্দ্রিক অনুষ্ঠানস্থল ও তার আশপাশের এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে। ভেন্যু কেন্দ্রিক অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে সার্বক্ষণিক সিসিটিভি মনিটরিং করা হবে। পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে আসা জনসাধারণকে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিতে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর কেন্দ্রিক মাইকিং ব্যবস্থা থাকবে। 

নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পোশাকে ও সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। সেইসঙ্গে ডগ স্কোয়াড ও বোম ডিসপোজাল ইউনিট দিয়ে সুইপিং করানো হবে। ধানমন্ডি লেকে মোতায়েন থাকবে নৌ পুলিশের টহল। নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকবে ফায়ার টেন্ডার ও অ্যাম্বুলেন্স। প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য দুই ভেন্যুতেই থাকবে মেডিকেল টিম। 

নিরাপত্তার স্বার্থে আগামী ১৪ আগস্ট থেকে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত ধানমন্ডি ৩২ ও বনানী কবরস্থান সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত হোটেল, গেস্ট হাউজ বন্ধ থাকবে এবং মেসগুলোতে পুলিশের নজরদারী বাড়ানো হবে।

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উস্কানিমূলক পোস্ট, গুজব ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য প্রচার করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করার বিষয়ে অনলাইন অথবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেকোণো অপপ্রচার কঠোরভাবে নজরদারি করাসহ আইনের আওতায় আনা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসসি/এমআরকে/এস