ব্যস্ত সময় পার করছে দিয়াবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ি

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ১২ ১৪২৭,   ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ব্যস্ত সময় পার করছে দিয়াবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৫ ১৮ জুন ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সারাদেশ জুড়ে চলছে নাগরিক তথ্য সংগ্রহ। এ জন্য ব্যস্ত সময় পার করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সব কয়টি থানা ও ফাঁড়ি এলাকা। এরই অংশ হিসেবে বিভিন্ন কার্যক্রম চালাচ্ছে দিয়াবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ি।

কার্যক্রমগুলো হলো- অপরাধ প্রতিরোধ-প্রতিকার, জননিরাপত্তা বিধানের লক্ষ্যে থানা এলাকার বাড়ি, স্থাপনা, প্রতিষ্ঠানের মালিক ও ভাড়াটিয়াদের সম্পর্কে তথ্য সংরক্ষণ করা। পাশাপাশি সিআইএমএস-এর মাধ্যমে এন্ট্রি নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে পরিচালিত হচ্ছে বিভিন্ন কার্যক্রম।

এ বিষয়ে দিয়াবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই শফিউল ইসলাম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, আমার ফাঁড়ি এলাকাতে যেন কোনো ধরনের অপরাধ না হয় সে জন্য এ কার্যক্রম অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তথ্য সংগ্রহ থেকে কেউ যেন বাদ না পরে সে জন্য আমরা দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি।

মঙ্গলবার রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় পুলিশের সেবা সম্পর্কিত প্রচারণার অংশ হিসেবে তুরাগ থানার দিয়াবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির  উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।ছবি: ডেইলি বাংলাদেশবাড়ির মালিকদের মধ্যে তথ্য ফরম বিতরণ ও সংগ্রহসহ ‘নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ’ ২০১৯ সেবা সম্পর্কিত জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আলোচনা করা হয়।

র‌্যালিটি দুপুর ১২টায় রাজধানীর তুরাগ থানার বাউনিয়া আব্দুল জলিল উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে বাউনিয়া বাদালদির বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে। পরে দুপুর ২টায় জজ মিয়া কমিউনিটি সেন্টারের সামনে এসে শেষ হয়। 

এ সময় র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন- তুরাগ থানার (ওসি) অপারেশন অফিসার মো. দুলাল হোসেন, ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই শফিউল আলম রুবেল, এএসআই শরিফুল ইসলাম, হরিরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল ইসলাম। 

এ ছাড়া স্থানীয় জনসাধারণ, আব্দুল জলিল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, বিভিন্ন স্তরের বাড়ীওয়ালা-ভাড়াটিয়ারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে র‌্যালিতে অংশ নেয়।

উল্লেখ্য, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, মাদক নিমূর্লসহ পুলিশের সেবা আরো দ্রুত জনগণের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছাতে নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ- ২০১৯ আয়োজন করা হয়। ১৫ জুন শুরু হওয়া এ তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ চলবে ২১ জুন পর্যন্ত।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/আরএইচ