মিথ্যা-অপপ্রচার এখন বিএনপির প্রধান রাজনৈতিক কৌশল

ঢাকা, বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৮,   ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

মিথ্যা-অপপ্রচার এখন বিএনপির প্রধান রাজনৈতিক কৌশল

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৩৬ ১৬ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১৭:৩৫ ১৬ অক্টোবর ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আন্দোলনে বার বার ব্যর্থ হয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে বিএনপি। তাই উপায়ন্তর না পেয়ে দলটি বর্তমানে মিথ্যা ও অপপ্রচারকে কৌশল হিসেবে বেছে নিয়েছে। 

জানা গেছে, দেশে-বিদেশে প্রায় এক হাজার ব্যক্তিকে নিযুক্ত করেছে বিএনপি। যাদের মূল কাজই হচ্ছে সরকারের বিরুদ্ধে নানা রকম মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করা। অর্থাৎ সরকারের বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলন নয় বরং ডিজিটাল জগতে সাইবার মিথ্যাচারের পথ বেছে নিয়েছে তারা। আর এর সঙ্গে যোগ দিচ্ছে জামায়াতে ইসলামও।

বিএনপির এসব প্রোপাগান্ডামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে তারেক জিয়ার আর্থিক সহায়তায়। লন্ডনে তারেক জিয়া হাওয়া ভবনের আদলে আরেকটি অফিস খুলেছেন। সেখানে তারেক জিয়ার সঙ্গে হারিছ চৌধুরী ও ড. কামাল হোসেনের জামাতা ডেভিড বার্গম্যান কাজ করছেন। আর এ অফিসের মাধ্যমেই দেশে-বিদেশে প্রোপাগান্ডার জন্য কিছু ব্যক্তিকে নিযুক্ত করা হচ্ছে। তাদের মাসিক মাসোয়ারাও দেওয়া হচ্ছে।

বিএনপির বিভিন্ন সূত্র বলছে, প্রতি মাসে অন্তত ১০ থেকে ২০ কোটি টাকা শুধু অপপ্রচারের জন্য খরচ করছে বিএনপি। এসব অপপ্রচারকারীদের প্রধান কাজ হচ্ছে আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অবাস্তব, নোংরা ও কুৎসিত ইস্যু উত্থাপন করা এবং সেগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া। 

সূত্র মতে, এ মুহূর্তে বিএনপির টাকায় দেশে-বিদেশে ৫৬টি ইউটিউব চ্যানেল চলছে। পাশাপাশি ৭২টি ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে বিভিন্নভাবে সরকারকে আক্রমণ করা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/টিআরএইচ