বিএনপির সেই ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর ‘রমরমা’ অবস্থা এখন আর নেই

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৯ ১৪২৮,   ১৫ সফর ১৪৪৩

বিএনপির সেই ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর ‘রমরমা’ অবস্থা এখন আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:২৬ ২৮ জুলাই ২০২১   আপডেট: ২০:০০ ২৮ জুলাই ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিএনপি নেতাদের তৈরি সুযোগ-সন্ধানী ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর সেই ‘রমরমা’ অবস্থা এখন আর চোখে পড়ে না বললেই চলে। ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগ পর্যন্ত এসব সংগঠনের ব্যাপক তৎপরতা দেখা গেলেও ধীরে ধীরে তা কমতে থাকে।

বিএনপির নেতারা বলছেন, এ সংগঠনগুলো মূলত দলের সুসময়ে তৎপরতা দেখায়। কিন্তু খারাপ সময়ে এরা থাকে না। ওই নির্বাচনের পর এদের দৌরাত্ম্য কমতে থাকায় এগুলো নিয়ে বিএনপির মাথাব্যথার আর কারণ ছিল না। কিন্তু সম্প্রতি ‘শহীদ জিয়া ছাত্র পরিষদ’ নামে একটি সংগঠন গড়ে তোলা এবং এদের কর্মকাণ্ডে দলটিকে, বিশেষ করে তাদের ছাত্রসংগঠন ছাত্রদলকে বিব্রত হতে হচ্ছিল বলে কেন্দ্রের কাছে অভিযোগ আসতে থাকে।

গত সোমবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ওই সংগঠনের সঙ্গে বিএনপির কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

এদিকে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর বিএনপি রাজনৈতিকভাবে চাপে পড়ায় এবং দেড় বছর ধরে চলা করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে বিএনপির নাম ব্যবহার করে গড়ে ওঠা ‘ভুঁইফোড়’ সংগঠনগুলোর খারাপ সময় যাচ্ছে। অর্থ জোগানদাতার অভাবে সভা-সমাবেশ নেই বললেই চলে।

তারা বলছেন, সভা-সমাবেশের নামে অর্থ আয় করা, দলীয় নেতাদের কাছে গুরুত্ব পাওয়া এবং বিএনপি ক্ষমতায় এলে লাভবান হওয়ার চিন্তা থেকেই সংগঠনগুলো গড়ে ওঠে। এর পেছনে দলটির কিছু কেন্দ্রীয় নেতারও ভূমিকা ছিল। তবে এখন এসবের কিছুই না থাকায় বিএনপির নামে করা ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর অস্তিত্ব অনেকটাই সংকটে। 

জানা গেছে, বিএনপির সমর্থক সংগঠন হিসেবে গড়ে ওঠা প্যাডসর্বস্ব ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর তৎপরতা মূলত ছিল জাতীয় প্রেসক্লাবের ভেতরে ও সামনের সড়কে এবং ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিকেন্দ্রিক। এরা বিভিন্ন বিষয়ে মানববন্ধন, সমাবেশ ও সেমিনারের আয়োজন করত। বিএনপির সমর্থক উল্লেখ করা এ ধরনের অন্তত ৬১টি কাগুজে সংগঠনের অস্তিত্বও মিলেছে।

সংগঠনগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘স্বাধীনতা ফোরাম’, ‘নাগরিক ফোরাম’, ‘জিয়া ব্রিগেড’ ‘দেশপ্রেমিক মঞ্চ’, ‘দেশনেত্রী পরিষদ’ ‘জিয়া ফোরাম’, ‘স্বদেশ জাগরণী ফোরাম’, ‘তারেক জিয়া ফোরাম’, ‘নাগরিক দল’, ‘মানবাধিকার ফোরাম’, ‘সেবাদল’, ‘বাস্তুহারা দল’, ‘প্রজন্ম দল’, ‘মঞ্চ’, ‘কর্মজীবী কল্যাণ পরিষদ’, ‘তৃণমূল দল’, ‘ভূমিহীন দল’, ‘বন্ধুদল’, ‘নতুন বাংলাদেশ’।

এছাড়া বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নামে নামকরণ করা সংগঠনগুলো হলো ‘জিয়া নাগরিক ফোরাম’, ‘জিয়া সেনা’, ‘জিয়া ব্রিগেড’। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নামে আছে ‘দেশনেত্রী পরিষদ’, ‘খালেদা জিয়া পরিষদ’, ‘তারেক জিয়া ফোরাম’, ‘তারেক পরিষদ’ ইত্যাদি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/টিআরএইচ/এইচএন