২০ দলীয় জোটে চাপের মুখে বিএনপি

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

২০ দলীয় জোটে চাপের মুখে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:০২ ৭ মে ২০২১   আপডেট: ১৫:৫২ ৭ মে ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

গেল নির্বাচনগুলোতে শোচনীয় পরাজয়, জোট নেতাদের অবমূল্যায়ন এবং রাজনীতিতে উদ্দেশ্যহীন পথ চলায় ২০ দলীয় জোটে চাপের মুখে পড়েছে বিএনপি।

জানা গেছে, উদ্দেশ্যহীন রাজনীতি করে ২০ দলীয় জোটের রাজনীতিকে প্রশ্নবিদ্ধ করায় জোট নেতাদের প্রশ্নবাণে জর্জরিত হচ্ছেন বিএনপি নেতারা। যার কারণে জোটে টানাপোড়েন বাড়ছে। বিএনপির প্রতি আস্থা হারাচ্ছে জোটের ছোট ছোট দলগুলো। বিএনপির রাজনৈতিক দর্শনে পরিবর্তন না আসলে অচিরেই জোটটি ভেঙ্গে যেতে পারে বলেও নানা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে রাজনীতিতে।

২০ দলীয় জোটের অচলাবস্থার বিষয়ে জানতে চাইলে জোটের অন্যতম দল লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ বলেন, বিএনপির ভুল রাজনীতির কারণে জোটের ভেতর ঐক্যের পরিবর্তে সৃষ্টি হয়েছে অনৈক্য, যা দিন দিন প্রকাশ্য রূপ নিচ্ছে। রাজনৈতিক জোটে অবিশ্বাস বাড়লে সেটি বেশিদিন টিকে থাকে না। 

তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্টকে ত্রাতা মনে করে বিএনপি আমাদের অবহেলা করেছে। বিএনপি আমাদের বিশ্বাস ভেঙ্গেছে, আমাদের সন্দেহের দৃষ্টিতে দেখেছে। এগুলো অবহেলা ছাড়া কিছুই না। যার কারণে জোটের বেশির ভাগ নেতা বিএনপির অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন না, এমনকি জোটের বৈঠকেও উপস্থিত হতে চান না। কিন্তু বিএনপির সিনিয়র নেতারা এমন করে অনুরোধ করেন যে, শেষ পর্যন্ত অনুষ্ঠানে যেতে বাধ্য হই আমরা। এভাবে একটি রাজনৈতিক জোট খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলতে পারে না।

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ বলেন, বিএনপির রাজনৈতিক চরিত্র কোনোদিন পরিবর্তন হবে না। ২০ দলীয় জোটকে নষ্ট করেছে বিএনপির উচ্চাভিলাষী নেতারা। ভুল মানুষকে বিশ্বাস করে সেই ভুলের মাসুল দিতে হচ্ছে বিএনপিকে। ড. কামাল ২০ দলীয় জোটের ক্ষতি করেছেন।

তিনি আরো বলেন, সত্যি বলতে-২০ দলীয় জোটের নেতাদেরও কিছু ভুল রয়েছে। তারা অতিমাত্রায় বিএনপির উপর নির্ভরশীল। ছোট ছোট দলগুলোর নির্ভরশীলতা অনুধাবন করেই বিএনপি তাদের সঙ্গে রাজনৈতিক প্রতারণা করে। সময় এসেছে জেগে ওঠার। ২০ দলের অন্যান্য দলগুলোকে বিকল্প জোট গঠন করা দরকার। বিএনপির ভরসা করলে রাজনীতিতে শূন্য হাতে ফিরতে হবে সবাইকে। কারণ বিএনপি হতাশাগ্রস্তদের দল।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/আরএইচ/টিআরএইচ