অযৌক্তিক রাজনৈতিক কৌশল নিয়ে দলের ভেতরেই বিতর্ক বিএনপির

ঢাকা, রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৪ ১৪২৭,   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

অযৌক্তিক রাজনৈতিক কৌশল নিয়ে দলের ভেতরেই বিতর্ক বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:০০ ২৬ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:৩০ ২৬ নভেম্বর ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করার লক্ষ্যে বিএনপির শীর্ষ কয়েক নেতার বিভিন্ন অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য রাজনৈতিক কৌশলের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। নেতাদের অপকৌশলের এসব সিদ্ধান্তের ফলে দলের কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা বারবার হতাশ হচ্ছেন।

২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারির নির্বাচন প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে ব্যর্থ হয়েছিল বিএনপি। এ ধরনের অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য সিদ্ধান্ত নেয়ার কারণে দলটি দুর্বল হয়ে পড়ছে মনে করেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। ফলে আজও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি বিএনপি এবং দলের সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মীরা সবাই নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে।

দলীয় সূত্র জানায়, সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের পর দলের কৌশল নিয়ে দলের ভেতরেই অনেক প্রশ্ন ওঠে। ২০১৪ সালের নির্বাচনের পর গঠিত সরকারকে অবৈধ বলে আখ্যায়িত করে ক্ষমতার লোভে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয় বিএনপি। কিন্তু জনসমর্থন না থাকার কারণে ভরাডুবি হয় দলটির।

বিএনপি নেতাদের দ্বিমুখী রাজনৈতিক কৌশলের কারণে দলটিতে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। এতে মাঠ পর্যায়ে দলের নেতাকর্মীদের একটি বড় অংশ হতাশায় ভুগে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন বলে প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন বিএনপির তৃণমূল নেতাসহ এক নীতিনির্ধারক নেতা।

রাজশাহীর নেত্রী মাহমুদা হাবিবা বলেন, বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে এক সময় বিএনপির ভালো অবস্থান ছিল। কিন্তু দলটির সাংগঠনিক অনেক দুর্বলতা আছে। সার্বিক ও সামগ্রিক দুর্বলতা থাকার কারণে আমরা সফলতার মুখ দেখছি না। 

সম্প্রতি জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় প্রকাশ্যে বিএনপির ব্যর্থতার কথা স্বীকার করেছেন দলটির ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, যখন নির্বাচনে যাওয়া উচিত নয় তখন আমরা যাই, আবার যখন যাওয়া উচিত তখন যাই না। যেদিন সংসদে যাওয়া উচিত নয়, সেদিন সংসদে গিয়ে আমরা বসে থাকি। সে কারণে আজ মানুষ বিএনপিকে ৪০০ ভোট দেয়। সিরাজগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী পেয়েছে এক লাখ ৮৮ হাজার ভোট আর আমাদের প্রার্থী পেয়েছে ৪০০ ভোট। এই হলো আমাদের অবস্থা।

বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম্যান আরো বলেন, সবচেয়ে বড় অশনি সংকেত দেখতে পাচ্ছি যে, বিএনপি এখন আন্দেলনের ডাক দিয়ে নেতাকর্মীদের রাস্তায় নামাতে পারছে না। আমাদের এত শক্তিশালী ছাত্রদল ছিল, তাদের রাস্তায় নামানো যাচ্ছে না। কেন বিএনপি তাদের নামাতে পারে না আসলে আমিও জানি না। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/এমকেএ/এইচএন/AN