‘পরিবেশবাদীরা এনজিও ব্যবসার জন্য লম্বা লম্বা কথা বলে’

ঢাকা, শনিবার   ৩১ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৬ ১৪২৭,   ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘পরিবেশবাদীরা এনজিও ব্যবসার জন্য লম্বা লম্বা কথা বলে’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৬ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন-  ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন- ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দেশের পরিবেশ রক্ষা নয়, এনজিও'র ব্যবসার জন্য লম্বা লম্বা বক্তব্য দিয়ে গলা গরম করে পরিবেশবাদীরা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। 

বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কলাভবনে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে তিনি এ কথা বলেন। 

দেলোয়ার হোসেন বলেন, করোনার কারণে সবার জীবন সংকটাপন্ন। এসময়েও পরিবেশের জন্য সারা পৃথিবীতে কাজ হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনে যারা প্রথম সারির দাবি করেন, তাদের কখনো কোথাও পরিবেশের আপদকালীন সময় পরিবেশ নিয়ে কাজও করতে দেখিনি।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, যদি বিপর্যয়ের সময় সুলতানা আপাকে আপনারা কোথাও দেখেন, গণমাধ্যমের সঙ্গে যারা সংশ্লিষ্ট আপনারা যদি খুজে পান দয়া করে প্রকাশ করবেন। আব্দুল সাঈদকে দেখলেও প্রকাশ করবেন। লম্বা লম্বা কথা বলবেন, বক্তব্য দেবেন, আর  কাজ না করে এনজিও’র ব্যবসার জন্য গলা গরম করবেন, পরিবেশ গেলো-পরিবেশ গেলো। 

তিনি বলেন, সবচেয়ে বড় বিষয় হলো দেশে বিভিন্ন পরিবেশ আন্দোলনের নেতা-নেত্রী রয়েছে। পরিবেশ উপরে তাদের শিক্ষা-দীক্ষা কতটুকু রয়েছে সে বিষয়ে আমরা প্রশ্ন করতে চাই না। বিভিন্ন উপকূলে গিয়ে গবেষণা করছেন কিভাবে উপকূল রক্ষা করবেন?

তিনি আরো বলেন, আপনারা কাজ না করে শুধু লম্বা লম্বা কাজের কথা বলেন। যদি কাজই করে থাকেন আমরা আপনাদের থেকে শিখতে চাই। পরিবেশ রক্ষার আন্দোলনে আমরা সহযোগিতা করতে চাই।

আওয়ামী লীগের বন পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক বলেন, শুধু দান পাওয়ার জন্য, বিদেশি পয়সা-ডোনেশন পাওয়ার জন্য কাজ করবেন, কথা বলবেন। কিন্তু এসব দেশের পরিবেশের উন্নয়নে কোন কাজে লাগে কিনা আমরা জানতে চাই, তরুণ সমাজ সেটা জানতে চাই।  

দেলোয়ার বলেন, ধান কাটার সময় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের পাওয়া গেছে কিন্তু আপনাদের (পরিবেশবাদী) পাওয়া যায়নি।

করোনায় আপনারা সঙ্কিত, তাই বাসার মধ্যে রয়েছেন। আওয়ামী লীগ- ছাত্রলীগের নেতাদেরও মা-বোন রয়েছে, জীবনের ঝুঁকি রয়েছে। সেই ঝুঁকি মোকাবিলা করে কিন্তু দেশের প্রতিটি প্রান্তে খাদ্য হাতে, ত্রাণ নিয়ে, ওষুধ নিয়ে আমাদের নেতাকর্মীরা গেছে; আপনাদের আমরা পাইনি।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, পরিবেশ উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই বিপর্যয় আমাদের গ্রাস করছে যার জন্য আমরা দায়ী না। আমরা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনাকে অনুসরণ করে পরিবেশের বিপর্যয় রোধে কাজ করে যাচ্ছি।  পরিবেশের বিপর্যয় রোধে শেখ হাসিনা ১৯৮৩ সাল থেকে কৃষক লীগের হাত ধরে বৃক্ষরোপণ করে চলছেন। আর তারও আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সেই  ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনের সময় থেকে পরিবেশের জন্য কাজ শুরু করেছেন। আওয়ামী লীগই পরিবেশ দরদী। পরিবেশ রক্ষায় কাজ করে চলেছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/এমআরকে