উপ-নির্বাচনে একক প্রার্থী দেয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে বিএনপি

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৮ ১৪২৭,   ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

উপ-নির্বাচনে একক প্রার্থী দেয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৫৫ ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:০১ ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

উপ-নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলকে বাদ দিয়ে এককভাবে প্রার্থী দেয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে বিএনপি। 

জানা গেছে, মনোনয়ন নিয়ে দরকষাকষিতে ব্যর্থ হওয়ায় উপ-নির্বাচনে প্রার্থী দিতে রাজি নয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোট। বিশেষ করে ঢাকা-৫ আসনে জামায়াতকে মনোনয়ন দিতে প্রলুব্ধ করা হলেও অর্থের পরিমাণ বেশি হওয়ায় তারা বিএনপির ডাকে সাড়া দেয়নি। যার কারণে এককভাবে নির্বাচন করতে বাধ্য হচ্ছে বিএনপি। 

এছাড়া বিএনপির মনোনয়ন প্রার্থীরা বিপুল পরিমাণে অর্থ পরিশোধের ওয়াদা করায় দলীয় প্রার্থীদের প্রতিই ঝুঁকছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। ফলে উপ-নির্বাচনে জোট সঙ্গীদের এভাবে এড়িয়ে যাওয়ায় রাজনৈতিক অঙ্গনে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জোটের দুর্বল রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসতেই উপ-নির্বাচনগুলোকে টেস্ট কেস হিসেবে ব্যবহার করতে চান তারেক রহমান। আর এ কারণেই এখন পর্যন্ত ২০ দলীয় জোট কিংবা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন দেননি তিনি। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলটির সিনিয়র ও দায়িত্বশীল এক নেতা এ বিষয়ে বলেন, দুই জোট নেতাদের সঙ্গে দরকষাকষি করে মনোনয়ন বাণিজ্যে অসফল হওয়ায় এককভাবে প্রার্থী দিতে চান তারেক। কারণ বিএনপির ভোটের রাজনীতিতে বরাবরই মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে নানা কথা শোনা যায়।

এছাড়া জোটের ভঙ্গুর রাজনীতির বেড়াজাল ছিন্ন করে বিএনপিকে এককভাবে রাজনীতিতে ফিরিয়ে আনতে তারেক রহমান এমন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন বলেও জানান তিনি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের চরম ব্যর্থতায় হতাশ হয়েছি আমরা। এছাড়া ড. কামাল ও জামায়াত ইস্যুতে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন মহলে সমালোচিত হচ্ছিল বিএনপি। 

তিনি বলেন, এই দুটি জোট সাম্প্রতিককালে বিএনপির কোনো কর্মসূচিতে অবদান না রাখায় তাদের ব্যাপারে চরম অসন্তুষ্ট বিএনপির নীতি-নির্ধারকরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/টিআরএইচ/এসআর/এইচএন