আসমা সুলতানার কবিতা
15-august

ঢাকা, শনিবার   ১৩ আগস্ট ২০২২,   ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯,   ১৪ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

আসমা সুলতানার কবিতা

আসমা সুলতানা ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৬ ১ মে ২০২২  

কবি আসমা সুলতানা।

কবি আসমা সুলতানা।

অসমাপ্ত গল্প 

সব সম্পর্ক এক সময় গতি হারায়। 
এমনকি হাতের উপর রাখা হাত, সহজে বইতে পারা সহজ হয় না। 
হৃদয় কাঁপানো সম্পর্কগুলো বুড়ো বটগাছ আর পথিকের মতো হয়ে যায়। 
পূর্নিমার রাতগুলো পুড়ে খাক হয়ে জমা হয় ছাইদানিতে।
এক সময় কাছে থাকার তীব্র আকুলতা পুরাতন আসবাবপত্রের মতো মনে হয়,
যদিও জানা আছে আধাঁরের আকর্ষণ আলোর থেকে বেশি,
তবুও অসমাপ্ত ঘূর্ণায়মান আপেক্ষিক জীবনে ভালো থাকা জরুরি হয়ে পড়ে তাই আধারও অনেক সময়— 
পেছন থেকে কুড়িয়ে নেয়া কিছু হারানো দিনের গল্প বুনে। 
ছেড়া জামা, পুরনো চিঠি, কাগজের ভাঁজের গোলাপ 
মাঝে মাঝে বুক ছিঁড়ে বৃষ্টি নামায়, 
ওলট পালট করে দেয় বর্তমান পৃথিবী, 
সমস্যায় দূরে সরে যাচ্ছে অহেতুক অভিপ্রায়গুলো,
তবুও রোবটিক জীবনে একটা পোস্টম্যানের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকা।

স্রোতের বিপরীতে আমি

একদিন সব ফিরিয়ে দেব
নীলিমা ভেঙে মেঘের বাড়ি যাব
তোমার অনুরাগ অভিযোগ যত ছিল
সব সুদে আসলে ফিরিয়ে দেব। 
ফিরিয়ে দেব তোমার দেয়া 
অষ্ট প্রহর, কষ্টগুলো। 
আমার থেকে মুখ ফিরিয়ে থাকা
আমার যে স্বরগুলো অবরুদ্ধ ছিল 
তোমার হা হা হাসির আড়ালে
তা আকাশ পানে বিলিয়ে দিব। 
তুমি ভাববে আমি মমতাহীন
তাই হব আমি। 
তোমার দেয়া অযত্নে অবহেলায় 
নুয়ে পড়া এই আমি, মেকাপের আড়ালে 
লুকিয়ে রাখতে সক্ষম আজ। 
তোমার সাথে একই সভা সিম্পোজিয়ামে 
সাজিয়েছি নিজেকে—
আজ আমি নিজেকে গুছিয়ে পান করছি 
সঞ্জীবনী অমৃত...
আজ সব ফিরিয়ে দেব
তোমার দেয়া ফুল মাড়িয়ে।

শ্রাবনের মেঘ 

আমি কান পেতে শুনি কুহুকুহু ধ্বনি নুপুরের কলতান 
দেহ মন দোলে শ্রাবণের ধারায় শুনবে কি সে গান 
বর্ষার মেঘের লুকোচুরি খেলা চঞ্চল রৌদ্রে
দূরে কোথা যেন বাজে বিরহের সুর 
ছোট্ট চড়ুই পাখির বুকে। 
জোসনার দেওয়ালে জোনাকিরা ফিরে গোধূলির দ্বারে দেয় টোকা! 
ফুলের বাহারে রংধনু রং মেখে সাজে মেঘ বালিকা,
মেঘ মেয়ে হাসে জলের নুপুরে সুর তুলে গায় পাখি 
যত প্রহেলিকা অসুখের বেনোজল কে তারে লুকিয়ে রাখি।

ডেইলি বাংলাদেশ/কেবি

English HighlightsREAD MORE »