আবদুল মান্নান সৈয়দ’র ৭৮তম জন্মবার্ষিকী আজ

ঢাকা, সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১৩ ১৪২৮,   ১৮ সফর ১৪৪৩

আবদুল মান্নান সৈয়দ’র ৭৮তম জন্মবার্ষিকী আজ

শিল্প ও সাহিত্য ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:১২ ৩ আগস্ট ২০২১  

আবদুল মান্নান সৈয়দ: জন্ম, ৩ আগস্ট ১৯৪৩, মৃত্যু: ৫ সেপ্টেম্বর ২০১০।

আবদুল মান্নান সৈয়দ: জন্ম, ৩ আগস্ট ১৯৪৩, মৃত্যু: ৫ সেপ্টেম্বর ২০১০।

আজ ৩ আগস্ট, ১৯৪৩ সালের এদিন জন্মগ্রহণ করেছেন আবদুল মান্নান সৈয়দ। তিনি বাংলা সাহিত্যের অন্যতম সাহিত্য সমালোচক ও সম্পাদক জীবনানন্দ। নজরুলসাহিত্যের অন্যতম গবেষক হিসেবে তিনি পরিচিতি পেয়েছেন। এছাড়াও তিনি ফররুখ আহমদ,  সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়, বিষ্ণু দে,  সমর সেন, বেগম রোকেয়া, আবদুল গনি হাজারী,  মোহাম্মদ ওয়াজেদ আলী, প্রবোধচন্দ্র সেন এর মতো কবি-সাহিত্যিক-সম্পাদককে নিয়ে গবেষণা করেছেন।

তার রচনাবলীর মধ্যে রয়েছে কবিতা: ‘জন্মান্ধ কবিতাগুচ্ছ’ (১৯৬৭), ‘জ্যোৎস্না রৌদ্রের চিকিৎসা’ (১৯৬৯), ‘সংবেদন ও জলতরঙ্গ’ (১৯৭৪), 
‘কবিতা কোম্পানি প্রাইভেট লিমিটেড’ (১৯৮২), ‘পরাবাস্তব কবিতা’ (১৯৮৪), ‘পার্ক স্ট্রিটে এক রাত্রি’ (১৯৮৩)’ ‘মাছ সিরিজ’ (১৯৮৪), ‘সকল প্রশংসা তার’ (১৯৯৩)

উপন্যাস: ‘পরিপ্রেক্ষিতের দাস-দাসী’, ‘অ-তে অজগর’ (১৯৮২), ‘কলকাতা’ (১৯৮০), ‘ক্ষুধা প্রেম আগুন’ (১৯৯৪), ‘কলকাতা’, ‘পোড়ামাটির কাজ’, ‘হে সংসার হে লতা’,

ছোটগল্প: ‘সত্যের মতো বদমাশ’, ‘চলো যাই পরোক্ষে’ (১৯৭৩), ‘মৃত্যুর অধিক লাল ক্ষুধা’, ‘নেকড়ে হায়েনা
তিন পরী’

তার লেখা ছোটগল্প ভিন্নতা পেয়েছে বাংলা সাহিত্যে। উপমাপ্রতীক বা রূপকের কাজও স্পষ্ট দেখা যায় গল্পের শরীরের ভাঁজে-ভাঁজে। পরীক্ষামূলক-নিরীক্ষাধর্মী এবং বিচিত্রধর্মী ছোটগল্পের সাহিত্যিক আবদুল মান্নান সৈয়দের ‘সত্যের মতো বদমাশ’ গল্পগ্রন্থ প্রকাশের মধ্য দিয়ে বাংলাসাহিত্যে একটা তোলপার সৃষ্টি হয়। 

আবদুল মান্নান সৈয়দের জন্ম ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জালালপুরে। তার স্ত্রী সায়রা সৈয়দ রানু ও একমাত্র কন্যা জিনান সৈয়দ শম্পা। বাবা সৈয়দ এএম বদরুদ্দোজা ছিলেন সরকারি চাকরিজীবী। মা কাজী আনোয়ারা মজিদ। তাদের সংসারে ছিলো ছয় ছেলে ও চার মেয়ে। 

শিক্ষা-জীবন শেষে তিনি একটি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানে কাজ শুরু করেন। কর্মজীবনে তিনি ফরিদপুর শেখ বোরহানুদ্দীন কলেজ, সিলেটের এমসি কলেজে, ঢাকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করেছেন। সবশেষে ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা শেষে ২০০২ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত নজরুল ইন্সটিটিউটের নির্বাহী পরিচালক ছিলেন। 

২০১০ সালের ৫ সেপ্টেম্বর মারা যান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম