কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত মারা গেছেন

ঢাকা, রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৭,   ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত মারা গেছেন

শিল্প ও সাহিত্য ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৪৭ ১৮ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১০:৪৭ ১৮ নভেম্বর ২০২০

কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত- ফাইল ছবি।

কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত- ফাইল ছবি।

জার্মানিতে কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত মারা গেছেন। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। 

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্তের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন তার স্ত্রী এলিজাবেথ।

মৃত্যুকালে কবির বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। গত চার দশক ধরে কবি অলোকরঞ্জন জার্মানিতে বসবাস করছিলেন। মৃত্যুর আগে তিনি বেশ কিছু দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। 

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগ থেকে হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করতে গিয়েছিলেন অলোকরঞ্জন। তার জীবন আদর্শজুড়ে ছিল বৈদগ্ধ্য আর সৃষ্টির আশ্চর্য সমন্বয়।

শ্রেষ্ঠ কবিতার উৎসর্গে তিনি লেখেন, ভগবানের গুপ্তচর মৃত্যু এসে বাঁধুক ঘর/ছন্দে, আমি কবিতা ছাড়ব না'! যা একদা উস্কে দিয়েছিল বহু বাঙালির কবিতা লেখার আবেগ।

অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত ১৯৩৩ সালের ৬ অক্টোবর কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। শান্তিনিকেতনে পড়াশোনা শেষ করে সাহিত্য নিয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য পা রাখেন সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে। তারপর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর। পরে ভারতীয় কবিতার শব্দমালা নিয়ে পিএইচডি করেন। এরপর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে এক যুগেরও বেশি সময় অধ্যাপনা করেছেন।

কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত সাহিত্য জগতে বিশেষ অবদানের জন্য একাধিক পুরস্কারও লাভ করেছেন। ১৯৯২ সালে ‘মরমী করাত’ কাব্যগ্রন্থের জন্য সাহিত্য অ্যাকাডেমি পুরস্কার পান তিনি। পরবর্তীতে এই কাব্যগ্রন্থই তাকে প্রবাসী ভারতীয়ের সম্মান এনে দিয়েছিল। এছাড়া রবীন্দ্র পুরস্কার, আনন্দ পুরস্কারও তার সম্মাননার ঝুলিতে রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ