বিপিএল শিরোপা রংপুরের

ঢাকা, বুধবার   ১২ মে ২০২১,   বৈশাখ ৩০ ১৪২৮,   ২৯ রমজান ১৪৪২

বিপিএল শিরোপা রংপুরের

 প্রকাশিত: ২২:০৩ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭   আপডেট: ২২:০৫ ১২ ডিসেম্বর ২০১৭

ছবি: সংগৃহিত

ছবি: সংগৃহিত

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) পঞ্চম আসরের ফাইনালে সাকিব-মাশরাফিতে বিভক্ত ছিল গোটা দেশ। কারো হার দেখতে রাজি না সমর্থকরা। তবে খেলার নিয়মে তো একজন হারবেই। আজ পরাজিতের দলে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ঢাকা ডায়নামাইটসকে হারিয়ে বিপিএলের পঞ্চম আসরের শিরোপা জিতলেন মাশরাফি বিন মুর্তজার রংপুর রাইডার্স।

অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির এটি চতুর্থ শিরোপা। এর আগে অধিনায়ক হিসেবে ঢাকা গ্লাডিয়েটর্সকে দুবার ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে একবার বিপিএলের শিরোপা জেতান মাশরাফি।

মিরপুরের ফাইনালে আজ টস জিতেছিলেন সাকিব আর হাসান। টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নেন ঢাকার অধিনায়ক। প্রথমে ব্যাটিং করে মাত্র এক উইকেটে ২০৬ রান তোলে রংপুর রাইডার্স। জবাবে ১৪৯ রানে শেষ হয়ে যায় ঢাকার ইনিংস। ৫৭ রানের জয় নিয়ে এবারের শিরোপা জিতল দেশের সর্ব-উত্তরের দলটি।

২০৭ রান তাড়া করে জেতাটা ঢাকার উইকেটে এভারেস্ট জয়ের চেয়ে কম কিছু নয়। সেটা করতে গিয়ে ম্যাচের শুরুতেই লড়াই থেকে ছিটকে যায় ঢাকা। প্রথম দুই ওভারে মেহেদী মারুফ ও জো ডেনলিকে হারায় দলটি। চতুর্থ ওভারে এভিন লুইস ও পঞ্চম ওভারে কাইরন পোলার্ডকে হারিয়ে পরাজয়টা নিশ্চিত হয়ে যায় ঢাকার।

সাকিব আল হাসান ও জহুরুল ইসলাম ঢাকার হয়ে প্রাণান্ত লড়েন। তবে ব্যবধান কমানো ছাড়া আর কিছু করতে পারেননি তারা। জহুরুল ইসলাম ৫০, সাকিব ২৬, লুইস ১৪ ও নারাইন করেন ১৪ রান। রংপুরের হয়ে সোহাগ গাজী, উদানা ও অপু নেন দুটি করে উইকেট। এ ছাড়া মাশরাফি ও রুবেল নেন একটি করে উইকেট।

এর আগে গেইলের ১৪৬ ও ম্যাককালামের ৫১ রানে ভর করে ২০৬ রান তোলে রংপুর রাইডার্স। ব্যাটিং শুরু করে রংপুরের শুরুটা ভালো হয়নি। দ্বিতীয় ওভারে জনসন চার্লসকে ফিরিয়ে দেন সাকিব আল হাসান। প্রথম কয়েকটা ওভার দেখে শুনে খেলেন গেইল ও ম্যাককালাম। প্রথম ৫ ওভারে রংপুর তোলে ২২ রান।

ষষ্ঠ ওভারে হাত খোলেন গেইল। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের ওভারে তিনটি ছয় মারেন গেইল ও ম্যাককালাম। এরপর আর থামেননি এই দুজন। একাদশতম ওভারে অর্ধশতক পূর্ণ করেন গেইল। ৩৩ বল লাগে গেইলের হাফ সেঞ্চুরি করতে। এরপর চার-ছয়ের ঝড় তুলে ১৭তম ওভারে বিপিএলের পঞ্চম শতকটি তুলে নেন তিনি।

অন্যপ্রান্ত হাফ সেঞ্চুরি করেন ম্যাককালাম। ৪৩ বলে ৫১ রান করে অপরাজিত থাকেন এই কিউই ব্যাটসম্যান। ম্যাককালাম রয়েসয়ে খেললেও গেইল ছিলেন অতিপ্রাকৃত। এই ইনিংসে ১৮টি ছয় মারেন তিনি। ৬৯ বলে ১৪৬ রান করে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন এই ক্যারিবীয় জায়ান্ট।

ডেইলিবাংলাদেশ/এমআরকে