ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯,   ফাল্গুন ৭ ১৪২৫,   ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪০

এ কেমন কাণ্ড পুলিশ পুত্রের!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: international-desk

 প্রকাশিত: ০১:১৯ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ০৮:২৮ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

ভারতে চাকরির খোঁজে এসে ধর্ষণ ও মারধরের শিকার হয়েছেন এক তরুণী।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত তরুণ রোহিত সিং টোমারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে দিল্লি পুলিশের মাদক বিভাগের এক কর্মকর্তার ছেলে। 

ভিডিওতে দেখা যায়, নির্মমভাবে তরুণীর চুলের মুঠি ধরে মারধর করছে রোহিত। ওই তরুণীকে টেনে নিয়ে সে কিল ও চড় মারছে। তার পেটে লাথিও মারে সে। 

পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে নির্যাতিতা তরুণী বলেন, রহিত আমাকে ওর বন্ধুর অফিসে কাজের জন্য ডেকে পাঠায়। সেখানে গেলে আমাকে ধর্ষণ করা হয়। ওই ঘটনার কথা আমি পুলিশকে জানাব বলাতেই রহিত আমাকে মারধর করে।

বিষয়টি নিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এক টুইট বার্তায় বলেন, এক তরুণীকে নির্মমভাবে মারধর করার বিষয়টি আমার নজরে এসেছে। আমি দিল্লি পুলিশ কমিশনারকে ফোনে বলেছি, ওই তরুণের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে।

পুলিশ জানায়, অফিসটি পরিচালনা করেন রহিতের বন্ধু আলি হাসান। ২১ বছর বয়সী ওই তরুণী ওই অফিসে গিয়েছিলেন চাকরির খোঁজে।

ভিডিও : 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ