Exim Bank Ltd.
ঢাকা, রবিবার ২২ জুলাই, ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫

আলা মাদ্রিদ ই নাদা মাস

নুসরাত মোহনাডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
ছবি: সংগৃহীত

ফুটবল খেলাটা শুধু নিছক খেলাই নয়। এই খেলার মধ্যে দর্শক, সমর্থক, খেলোয়াড়দের আবেগ মিশে একাকার হয়ে থাকে।

প্রতিটি জয়-পরাজয়ে ফুটবল প্রেমীদের হাসি ও কান্না মিশ্রিত থাকে।

তাই তো পৃথিবীর এক প্রান্তে থাকা দর্শকও অপর প্রান্তে খেলতে থাকে একটি দলের জয়ে পরাজয় অশ্রুসিক্ত হয়। অচেনা দেশের অচেনা একটি শহরে গড়ে ওঠা একটা ক্লাবকেও খুব আপন মনে হয় এই খেলার জন্যেই।

আর ক্লাবটি যদি হয় রিয়াল মাদ্রিদ তাহলে তো পৃথীবীর যেকোন প্রান্তেই রিয়াল এর প্রেমে পড়া দর্শক খুঁজে পেতে কোনো সমস্যা হয় না।

রিয়াল মাদ্রিদ নিয়ে আবেগী হয়েছেন খেলোয়াড়েরা, আবেগী হয়েছেন এর সাথে যুক্ত খেলোয়াড়েরাও।

রিয়াল মাদ্রিদ লেজেন্ড ডি স্টেফানো তো বলেছেন, ‘রিয়াল মাদ্রিদ শুধু একটি ক্লাব নয়, এটি একটি আবেগের নাম।’ আর সেই আবেগকেই একটি গানে ধারণ করেছেন রেড ওয়ান নামে পরিচিত মরোক্কান এক গীতিকার।

শুরু থেকেই ইউরোপ ইতিহাসের সর্বশ্রেষ্ঠ ক্লাব হিসেবেই রাজত্ব করেছে রিয়াল মাদ্রিদ! মাঝে কিছু সময়ের জন্য পথ হারিয়ে ফেললেও গত ৪ বছরে ৩টি চ্যাম্পিয়নস লীগ শিরোপা জিতে নিজের রাজত্বে ঠিক ফিরে এসেছে মাদ্রিদ।

২০০২ সালে নিজের নবম ইউসিএল ট্রফি জেতার পর ‘লা ডেসিমা’ বা দশম শিরোপা টি জয় করতে রিয়ালের অপেক্ষা করতে হয়েছে ১২টি বছর।

এই দশম শিরোপা জিততেই পেরেজ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে তখন কার রেকর্ড ট্রান্সফার ফি দিয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে দলে ভিড়িয়েছিলেন ২০০৯ সালে ।

এরপরে দল গুছিয়েছেন নানা ভাবে, কোচ পাল্টিয়েছেন।

অবশেষে ২০১৪ সালে সেই বহুল অপেক্ষার পর দশম শিরোপা এসে ধরা দেয় রিয়াল মাদ্রিদের হাতে। আর রিয়াল মাদ্রিদ ইউরোপের রাজা হিসেবে গড়ে তোলে নতুন রেকর্ড। এই দশম ইউরোপীয় কাপের উদযাপন পার্টিতে, রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাবের নতুন গান উপস্থাপন করেছে রেড ওয়ান: আলা মাদ্রিদ ই নাদা মাস।

মরোক্কান-সুইডিশ সঙ্গীত সুরকার এবং প্রযোজক নাদিয়ের খাইয়াত অর্থাৎ রেড ওয়ান গানটির প্রযোজক এবং গানটি লিখেছেন সাংবাদিক মেনুয়েল জাবোয়স।

তিনি বলেন, ‘এটি একটি স্বপ্ন সত্যি হয়ে ওঠার মত। এখন আমি আমার ভালোবাসার জিনিসগুলির সাথে এখানে, লা ডেসিমা এবং রিয়েল মাদ্রিদ। লোকেরা এটি গাইছিল যেন তারা আগেই শুনেছিল। আমি একজন রিয়াল মাদ্রিদ অনুরাগী এবং সমর্থকদের জন্যই একটি গান করার ইচ্ছা ছিল আমার।’

পেরেজ বলেন, ‘ডেসিমা গানটি স্টেডিয়ামে এবং স্টেডিয়ামের বাইরের সমস্ত ভক্তরা গেয়ে উঠবে। এটি এমন একটি গান হতে যাচ্ছে যা রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসের অংশ। এপ্রিল মাসে এটি রেকর্ড করা হয়েছিল এবং আমাদের সম্পূর্ণ দল এবং কার্লো আনচেলত্তি এই গানটি গেয়েছিল।’

গানটি শুনলে এবং মিউজিক ভিডিওটি দেখলে রিয়াল সমর্থক তো বটেই যেকোকো ফুটবল প্রেমীরই মন ছুঁয়ে যাবে।

একজন রিয়াল মাদ্রিদের অন্ধভক্ত হওয়ায় প্রথম যেদিন গানটি শুনি ভিডিওসহ আমার গায়ে পশম দাঁড়িয়ে গিয়েছিল। গানটির ভাষা স্প্যানিশ এবং এর কথায় রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ কিছু অংশ উঠে এসেছে।

বাংলা ভাষাভাষী রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থকদের জন্য গানটির অর্থ অনুবাদ করে দেওয়া হল ব্যাখ্যা সহ।

“তোমরা ইতিহাস গড়েছোতোমরাই ইতিহাস গড়বেকারণ তোমাদের জয়ের আকাঙ্ক্ষায় কারো বাধা দেয়ার সাধ্য নেই!

তারকারা নেমে আসছে!আমার পুরানো চামার্তিনে ... (১)কাছে এবং দূরে থেকেওআমরা সবাই এখানে একত্রিত!

আমি তোমার চিহ্ন(জার্সি) পরিধান করি ঠিক আমার হৃদয় পাশে!তোমার খেলার দিনগুলোইআমার সবকিছু!

আমাদের "তীর" ছুটছে! (২)আমাদের মাদ্রিদ আক্রমণ করছে!

আমিই সংগ্রাম! আমিই সৌন্দর্য!আর আমি শুধু শিখেছি চিৎকার করতে :মাদ্রিদ! মাদ্রিদ! মাদ্রিদ!আলা মাদ্রিদ! (3)এছাড়া আর কিছুই না! আর কিছুই না!আলা মাদ্রিদ!”

এখানে কিছু শব্দের ব্যাখ্যার প্রয়োজন আছে। যেমনঃ

(১) চামার্তিন: রিয়াল মাদ্রিদের হোমগ্রাউন্ড হল সান্তিয়াগো বার্নাব্যু। কিন্তু ১৯২৩ সালে ২২,৫০০ লোক ধারণক্ষমতার ‘এস্তাদিও চামার্তিন’ কে রিয়াল মাদ্রিদের হোমগ্রাউন্ড হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল।

এর পর স্পেনে গৃহযুদ্ধ শুরু হলে মাদ্রিদের স্টেডিয়ামের বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়। পুরনো খেলোয়াড় ও সদস্যরাও দলচ্যুত হয়ে যায়।

মাদ্রিদের জেতা সব ট্রফি চুরি হয়ে যায়। মোটামুটি ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয় রিয়াল মাদ্রিদ। এই অবস্থায় মাদ্রিদের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পান মাদ্রিদেরই সাবেক খেলোয়াড় সান্টিয়াগো বার্নাব্যু ইয়েস্তে।

১৯৪৩ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর তার প্রথম কাজই ছিলো স্টেডিয়াম সংস্কার। ১৯৪৩ সালে সে প্রকল্প হাতে নিয়ে ১৯৪৭ সালের মাঝে শেষ করেন মাদ্রিদের নতুন স্টেডিয়াম ‘নুয়েভো এস্তাদিও চামার্তিন’ এর কাজ।

সেই সময়ে এর ধারণক্ষমতা ছিলো ৭৫,১৫৪। পুরাতন প্লেয়ারদের ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি দলে সাইন করান তৎকালীন সময়ের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় আলফ্রেডো ডি স্টেফানোকে। বিধ্বস্ত রিয়াল মাদ্রিদের ধ্বংসস্তূপ থেকে উঠে দাঁড়ানোর গল্প শুরু হলো এখান থেকেই। শুরু হলো পুরো বিশ্ব শাসন করার গল্প। রিয়াল মাদ্রিদের সত্যিকারের ‘রিয়াল মাদ্রিদ’ হয়ে ওঠার গল্প।

১৯৫৫ সালে পুনরায় নুয়েভো এস্তাদিও চামার্তিনের সংস্কার কাজ শেষ হয়। নতুন করে আবার ঢেলে সাজানোর পর এ স্টেডিয়ামের ধারণক্ষমতা হলো ১,২৫,০০০।

মাদ্রিদের বোর্ড ডিরেক্টররা চিন্তা করলেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যু ইয়েস্তের সম্মানার্থে স্টেডিয়ামের নামটাই বদলে ফেলবেন। তাদের কথামতো নুয়েভো এস্তাদিও চামার্তিনের নাম বদলে রাখা হলো ‘এস্তাদিও সান্তিয়াগো বার্নাব্যু’।

পরবর্তীতে অবশ্য সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর ধারণক্ষমতা কমানো হয় স্টেডিয়ামের অন্য সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে। বর্তমানে এর ধারণক্ষমতা ৮৫,৪৫৪।

(২) অ্যারো: স্প্যানিশে ‘লা সায়েতা’ বা অ্যারো বা তীর বলতে রিয়াল মাদ্রিদ লেজেন্ড আলফ্রেডো ডি স্টেফানো কে বুঝানো হয়েছে।

তার ডাকনাম ছিল ‘লা সায়েতা রুবিয়া’ অর্থ সোনালী তীর।

স্টেফানোর শটগুলো ছিলো তীরের মতন তীক্ষ্ণ। তাই সোনালী চুলের এই রিয়াল স্ট্রাইকার সমর্থকদের কাছ থেকে ভালোবাসা স্বরূপ পেয়েছিলেন এই নাম।

তিনি মাদ্রিদের হয়ে ৫টি ইউরোপিয়ান কাপ জয় করেন।

মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি রিয়াল মাদ্রিদের সম্মানিক সভাপতি ছিলেন। ২০১৪ সালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। রিয়াল মাদ্রিদের এই তারকাকে এতো বছর পরেও রিয়াল মাদ্রিদের সমর্থকেরা মনে করেন শ্রদ্ধাভরে। (৩) আলা মাদ্রিদ: এই শব্দটির সঠিক অনুবাদ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। এটি একটি আকাঙ্ক্ষাসুচক কথা। ‘এগিয়ে চলো মাদ্রিদ’, ‘চলো মাদ্রিদ’ ইত্যাদি এর কাছাকাছি অর্থ দাঁড়ায়। এটিকে রিয়াল মাদ্রিদের স্লোগান বা মূলনীতি বলা যায়। গানটি শুনতে পারবেন নিচের লিংকে :https://www.youtube.com/watch?v=eE0Lx951VEA

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে

আরও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
চার মাসের ‘গর্ভবতী’ বুবলী!
বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিসা সেন্টার এখন ঢাকায়
শাকিবের সঙ্গে বিয়ে, যা বললেন নায়িকা বুবলী
ক্যামেরায় সম্পূর্ণ নগ্ন হয়েছেন এই অভিনেত্রীরা, কারা এরা?
ভেঙে গেলো পূর্ণিমার সংসার, পাল্টা জবাবে যা বললেন নায়িকা
মায়ের জিন থেকেই শিশুর বুদ্ধি বিকশিত হয়!
বিদ্যুৎ বিল কমিয়ে নেয়ার কিছু টিপস
ব্যর্থ হলো মার্কিন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী পরীক্ষা
এইচএসসি'র ফল জানা যাবে যেভাবে
ধর্ষণের কবলে মৌসুমী হামিদ, ধর্ষক গাড়িচালক!
চীনের মধ্যস্থতায় তথ্য আদান-প্রদানে সম্মত পাকিস্তান-আফগানিস্তান
বিশ্বকাপের সব গোল্ডেন বল জয়ীরা
গৌরিকে নিয়ে ভক্তের প্রশ্ন, উত্তর দিলেন শাহরুখ!
জাবির 'এইচ' ইউনিটের ফল প্রকাশ
যেসব দেশে কোনো নদী নেই
মহান আল্লাহ তাআলা যাদের প্রতি সন্তুষ্ট
আমি বিশ্বের সেরা ক্লাবটিই বেছে নিয়েছি
কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে কিছু ভবিষ্যতবাণী!
নিখোঁজের ৩৭ বছর পর ফিরে এসেছিলো যে বিমান
ভাত খাওয়ার পর যেসব ভুল ডেকে আনছে মৃত্যু
শিরোনাম:
দিল্লি পৌঁছে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন এরশাদ ১ রানে বাংলাদেশের ১ উইকেটের পতন টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ সিরাজুল ইসলামকে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র করা হয়েছে পদোন্নতিতে পেশাগত দক্ষতার ওপর জোর দিলেন প্রধানমন্ত্রী