Exim Bank Ltd.
ঢাকা, রোববার ২১ অক্টোবর, ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫

বুদ্ধিমান হওয়ার কৌশল

ফাতিমাতুজ্জোহরাডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
বুদ্ধিমান হওয়ার কৌশল
সামান্য চেষ্টাতেই হতে পারেন জিনিয়াস

চাকরি, পড়ালেখা বা ব্যবসার ক্ষেত্রেই হোক না কেন, সব ক্ষেত্রেই বুদ্ধিমানের পরিচয় দেয়া খুবই কষ্টের। তাই বুদ্ধিমান হওয়ার এমন কিছু টিপস জেনে নিন, যেগুলো ব্রেইনের নিউরনগুলোকে কার্যক্ষম করে দেবে আর আপনিও হয়ে উঠবেন বুদ্ধিমান ও জিনিয়াস।

এমন কিছু বিশেষ আচরণ রয়েছে যা জিনিয়াস বা বুদ্ধিমান ব্যক্তিদের মধ্যে দেখা যায়। তার মানে এই নয়, তিনি জিনিয়াস তাই, এগুলো প্রতিদিন করেন। এই ধারণাটি সম্পূর্ন ভূল। আসল কথা, তারা প্রতিদিন কিছু টিপস মেনে চলেন বলেই তারা জিনিয়াস হয়েছেন। তাই যদি জীবনে একজন জিনিয়াস হতে চান তবে এখন থেকেই কিছু টিপস অনুসরন শুরু করতে পারেন।

১। বিপরীত হাতে ব্রাশ করতে পারেন। যদি ডান হাত দিয়ে ব্রাশ করে থাকেন তবে এখন থেকে বাম হাত দিয়ে ব্রাশ করা শুরু করতে হবে। আর যদি বাম হাতে ব্রাশ করে থাকেন তবে ডান হাতে ব্রাশ করা করা শুরু করতে পারেন। এতে ব্রেইনে নতুন নতুন নিউরন তৈরি হয়। সবার এটাই মনে হতে পারে, বিপরীত হাতে ব্রাশ করলে তা এমন কি প্রভাব ফেলতে পারে? যখনই অন্য হাতে ব্রাশ করতে শুরু করেন তখনই ব্রেইন সজাগ হতে শুরু করে। আর নিউরন সংযোগগুলো আরও মজবুদ হতে শুরু করে। শুধু তাই নয় এটি নতুন নতুন কোষও গঠন করতে সাহায্য করে। যা ব্রেইনে এক নতুন প্রভাব ফেলতে থাকে পারে। যখন হাত পরিবর্তন করবেন বুঝতে পারবেন এটি আপনার জন্য কতটা সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে। তবুও এ কাজটি প্রতিদিন করতে হবে। রোজ এক হাতে ব্রাশ করলে একই নিউরন কার্যক্ষম হয়। অন্য হাতে ব্রাশ করা শুরু করলে ব্রেইনের একটা অংশ খুলে যায়। এর ফলে ব্রেইন আরো সক্রিয় হতে শুরু করে। হটাৎ করে যদি অন্য হাতে ব্রাশ করতে শুরু করেন তবে ব্রেইন কোষগুলো বৃদ্ধি পেতে থাকবে। যার ফলে এমন সব আইডিয়া মাথায় আসতে থাকবে যা আপনাকে একজন জিনিয়াসে পরিনত করতে সাহায্য করবে।

২। নির্দিষ্ট লক্ষ্য তৈরি করতে হবে। লক্ষ্য যখন নির্দিষ্ট থাকে তখনই ব্রেইন ফুল শক্তিতে কাজ করতে পারে। আর এই কারণে বৃদ্ধ বয়সে ব্রেইনের কার্যকারিতা কমে যায়। কারণ ততোদিনে লক্ষ্য পূরণ হয়ে যায়। অবসরে যাওয়ার পর বেশির ভাগ মানুষই অন্য কোন লক্ষ্য নিয়ে আগানোর চেষ্টা করে না। তবে কিছু ব্যক্তি এমনও আছেন যারা অবসরের পরও কোন না কোন লক্ষ্য তৈরি করে এগিয়ে চলেন। যতদিন কোন লক্ষ্য থাকবে ততদিন ব্রেইনে সিগনাল যেতে থাকে, এই শরীরে এখনো শক্তির প্রয়োজন। এতে বুদ্ধিমত্তার পরিমাণও বৃদ্ধি পেতে থাকে। যদি জীবনে কোন লক্ষ্য না রাখেন তবে ব্রেইন ধীরে ধীরে অকার্যকর হয়ে ঠিক ভাবে কাজ করবে না। তাই কোন না কোন লক্ষ্য রাখতে হবে, তারপর সম্পূর্ন শক্তি ওই লক্ষ্যের দিকে লাগিয়ে দিতে হবে। যতক্ষন জীবন কোন লক্ষ্য থাকবে ততক্ষন আপনার জীবনের শক্তি বা ক্ষমতা থাকবে। যতটা বেশি শক্তি নিয়ে লক্ষ্য পূরণ করতে থাকবেন আপনার লক্ষ্য ততটাই উচ্চতর দিকে বৃদ্ধি পেতে থাকবে। এতে ব্রেইন আরও দ্রুত কাজ করতে থাকবে আর আপনি একজন বুদ্ধিমান মানুষ হয়ে উঠতে পারবেন।

৩। ডায়রি বা নিজের জীবনী লিখতে পারেন। পুরো দিন কি কি করলেন তা ঘুমানোর আগে অবশ্যই চিন্তা করবেন। আজকাল অনেকেরই মনে থাকে না সকালে তিনি কি খেয়েছেন। আর কিছু কিছু ব্যক্তি চিন্তা করার চেষ্টাও করেন না। কারণ বেশির ভাগ মানুষেরই এই সম্পর্কে কোন ধারণাই নাই যে চিন্তাশক্তি ব্রেইনের পাওয়ারকে কতটা বাড়াতে পারে। তাই রাতে ঘুমানোর আগে সারাদিন কি কি করলেন তা একটি ডায়রীতে লিখে রাখবেন। যদি কোন ভালো কাজ করেন লিখবেন, আর যদি কোন খারাপ কাজ করেন তাও লিখে রাখবেন। এটি ব্রেইনকে অনেকটা শান্ত রাখতে সাহায্য করবে। আর তার সঙ্গে এটি মেমরিতে এমন সব প্রভাব ফেলবে যা ব্রেইনকে আরও শক্তিশালী করে তুলবে। মেমরিকে শক্তিশালী করে তোলার এটি একটি অসাধারণ পদ্ধতি। তাই আজ থেকে নিজের জীবনীে লেখার চেষ্টা করবেন। যা ব্রেইনের অনুশীলন হিসেবেও কাজ করবে। আর ব্রেইন ও বুদ্ধিমত্তাকে আরও শক্তিশালী জায়গায় নিয়ে যেতে সাহায্য করবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসজেড

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
আজো হিমঘরে সন্তানের প্রতীক্ষায় ‘বাবা’!
আজো হিমঘরে সন্তানের প্রতীক্ষায় ‘বাবা’!
আইয়ুব বাচ্চু মারা গেছেন
আইয়ুব বাচ্চু মারা গেছেন
দুই স্বামীকে ‘ছেড়ে’ মন্ট্রিলে দেখা মিলল তিন্নির!
দুই স্বামীকে ‘ছেড়ে’ মন্ট্রিলে দেখা মিলল তিন্নির!
‘তিন ভাই’ একসঙ্গে আমাকে ধর্ষণ করেছিল’
‘তিন ভাই’ একসঙ্গে আমাকে ধর্ষণ করেছিল’
না ফেরার দেশে সালমানের ‘শেষ প্রেমিকা’
না ফেরার দেশে সালমানের ‘শেষ প্রেমিকা’
যেভাবে প্রথম বুবলীর ‘ভাই’
যেভাবে প্রথম বুবলীর ‘ভাই’
স্ত্রী ফিরে দেখে বাসায় অন্য নারী!
স্ত্রী ফিরে দেখে বাসায় অন্য নারী!
‘ওয়েব সিরিজে ভরপুর নগ্নতা’ দেখার কেউ নেই!
‘ওয়েব সিরিজে ভরপুর নগ্নতা’ দেখার কেউ নেই!
প্রেমিকের কবরে কনের সাজে প্রেমিকার কান্না
প্রেমিকের কবরে কনের সাজে প্রেমিকার কান্না
দাম শুনলে চমকে যাবেন যে কেউই!
দাম শুনলে চমকে যাবেন যে কেউই!
মৃত্যুর আগে কোথায় ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু?
মৃত্যুর আগে কোথায় ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু?
অনেকেই সাবান জমান কেউ গোসলই করেন না!
অনেকেই সাবান জমান কেউ গোসলই করেন না!
এক উঠোনে মসজিদ-মন্দির, প্রার্থনায় নেই বিবাদ
এক উঠোনে মসজিদ-মন্দির, প্রার্থনায় নেই বিবাদ
দুলাভাইয়ের কাছে শ্যালিকার আবদার!
দুলাভাইয়ের কাছে শ্যালিকার আবদার!
বন্ধুর ‘অকাল প্রয়াণে’ যা বললেন হাসান
বন্ধুর ‘অকাল প্রয়াণে’ যা বললেন হাসান
‘বেঁচে আছেন বাচ্চু?’ এ কী শোনালেন!
‘বেঁচে আছেন বাচ্চু?’ এ কী শোনালেন!
১ কোটি টাকা চেয়েছিলেন অনন্ত
১ কোটি টাকা চেয়েছিলেন অনন্ত
এবার মেয়েকে নিয়ে মারাত্মক কথা বললেন ঐশ্বরিয়া!
এবার মেয়েকে নিয়ে মারাত্মক কথা বললেন ঐশ্বরিয়া!
মিলনেই মৃত্যু, কারা ছিলো সেই ‘বিষকন্যা’?
মিলনেই মৃত্যু, কারা ছিলো সেই ‘বিষকন্যা’?
বাপ-বেটা-শ্বশুর বিকল্পধারা থে‌কে ব‌হিষ্কার
বাপ-বেটা-শ্বশুর বিকল্পধারা থে‌কে ব‌হিষ্কার
শিরোনাম:
মিরপুরে জিম্বাবুুয়ের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে টাইগাররা মিরপুরে জিম্বাবুুয়ের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে টাইগাররা পাবনায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত পাবনায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশন বিকেলে শুরু হচ্ছে জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশন বিকেলে শুরু হচ্ছে