সৌন্দর্য্য চর্চায় কফি

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬,   ১৯ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

সৌন্দর্য্য চর্চায় কফি

 প্রকাশিত: ১৩:২৭ ১২ অক্টোবর ২০১৮   আপডেট: ১৩:২৭ ১২ অক্টোবর ২০১৮

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সকালে কিংবা বিকেলে এক কাপ কফির চুমুক মনে নিশ্চয়ই প্রশান্তির যোগান দেয়! কফির কি শুধু স্বাস্থ্যগুণই রয়েছে না-কি এতে সৌন্দর্যগুণই রয়েছে? জেনে নিন-

চুল রঙ করতে: কোনো ক্যামিকেল ব্যবহার না করেই কফির জাদুতে চুল রাঙিয়ে নিতে পারেন। এজন্য- এক চা চামচ (বা দুই, চুলের দৈর্ঘ্যের ওপর নির্ভর) কফির গুঁড়োর সঙ্গে পছন্দের কন্ডিশনার মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। অবশ্যই মিশ্রণটি শ্যাম্পু করা পরিষ্কার চুলে ব্যবহার করতে হবে। এবার পাঁচ থেকে দশ মিনিট অপেক্ষা করে ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুঁয়ে ফেলুন। চুল শুকিয়ে গেলে লক্ষ্য করুন, রঙ নিশ্চয়ই উজ্জ্বল হয়েছে!

চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়: কফি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। সেইসঙ্গে চুল করে ঝলমলে। এজন্য কফির গুঁড়ো সামান্য পানির সঙ্গে মিশিয়ে গোসলের সময় চুলের গোড়ায় ম্যাসেজ করুন। এক থেক দুই মিনিট চুল শ্যাম্পু করে কন্ডিশনিং করুন। ২০১৪ সালের ব্রিটিশ জার্নাল অব ডার্মাটোলোজিতে বলা হয়েছে, চুল বৃদ্ধির জন্য কফির সুনাম বেড়েছে। অবশ্যই চুল পড়া রোধ করতে এবং নতুন চুল গজাতে কফির মাস্ক ব্যবহার করা উচিত।’

ঠোঁট সুরক্ষায়:

ম্যাট অথবা গ্লসি লিপস্টিক ঠোঁটে ব্যবহারের আগে আধা চা চামচ কফির গুঁড়ো এবং আধা চা চামচ মধু মিশিয়ে কিছু সময় ঠোঁট স্ক্যাব করুন। তারপর একটি ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন। আবার লিপিস্টিক উঠানোর পরও ব্যবহার করুন। এর ফলে ঠোঁট যেমন নরম হবে তেমনি ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হবে।

চোখের নিচের কালো দাগ ও ফোলাভাব দূর করে:

অনেকেই চোখের নিচের কালো দাগ নিরেয় দুশ্চিন্তায় থাকেন। তাদের জন্য বলছি, আন্ডার আই এরিয়াতে সামান্য পানি মেশানো কফি পাউডারের মিশ্রণ লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুঁয়ে ফেলুন। কফি অ্যান্টি-ফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন। এটি চোখের ফোলাভাব দূর করে।

ত্বক উজ্জ্বল:

ত্বকের গভীরে থাকা টক্সিন দূর করতে মাত্র দুইটি উপাদানই যথেষ্ট- অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ কফি এবং ফ্যাটি-অ্যাসিড সমৃদ্ধ অলিভ অয়েল। এজন্য দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েলের সঙ্গে দুই টেবিল চামচ কফির গুঁড়ো মিশিয়ে মিশ্রণটি মুখে ম্যাসেজ করুন তবে চোখের এড়িয়া বাদ দিন। এবার ১ মিনিট অপেক্ষা করে ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস/এসজেড

Best Electronics