‍চুক্তি বাস্তবায়ন না হলে আদালতে মীমাংসা

.ঢাকা, বুধবার   ২৪ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১১ ১৪২৬,   ১৮ শা'বান ১৪৪০

‍চুক্তি বাস্তবায়ন না হলে আদালতে মীমাংসা

 প্রকাশিত: ২২:২৮ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ২৩:১৯ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

এশিয়া কাপের প্রস্তুতি চলাকালে জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক স্পন্সর কোম্পানি রবি আচমকা চুক্তি বাতিল করে। স্পন্সর বাতিলের ঘোষণা দিয়ে রবি মুলত বিসিবি’র সঙ্গে আর্থিক চুক্তির বিশেষ শর্ত ভঙ্গ করে। এরপর থেকেই বিসিবি রবির সঙ্গে করা আর্থিক চুক্তির বিস্তারিত নিজস্ব বিভাগে পর্যালোচনা করতে পাঠায়।

একটি টুর্নামেন্টের আগে আচমকা চুক্তি বাতিল করায় রবি বিসিবিকে ক্ষতিপূরণ দেবে। বিসিবি-রবি’র চুক্তির শর্তের মধ্যে এভাবেই উল্লেখ আছে বিষয়টি। ক্ষতিপূরণের বিষয়টি রবি শেষ না করলে বিসিবি আদালত পর্যন্ত যেতে বাধ্য হবে বলে বিসিবি সূত্রে জানা গেছে।

বিসিবি থেকে আরো জানা গেছে, মোবাইল কোম্পানী রবি এখন বিসিবি’র সঙ্গে করা আর্থিক চুক্তির শর্তাবলি মানছে না। আর বিসিবি কোন ভাবেই শর্ত অনুযায়ী চুক্তিতে যা যা উল্লেখ আছে তা ছেড়ে দিতেও রাজী নয়।

সূত্র জানিয়েছে, চুক্তিতে উল্লেখ রয়েছে, রবি যদি কোন রকম ঘোষণা না দিয়ে চুক্তি বাতিলও করে সেক্ষেত্রে চুক্তি অনুয়ায়ী বছরের পুরো স্পন্সরশীপের অর্থ রবিকে প্রদান করতে হবে। বিশেষ করে আগাম সময় না দিয়ে রবি জাতীয় দলের কোন টুর্নামেন্টের আগে স্পন্সরশীপ বাতিল করতে পারবে না। রবি সেটাই করেছে।

কিন্তু এশিয়া কাপের কয়েক দিন আগে রবি সেটা করে শুধু চুক্তিই ভঙ্গ করেনি, সঙ্গে বিসিবিকে বিপাকে ফেলে দেয়। যা বিসিবি স্বাভাবিকভাবে  নেয়নি।

বিসিবি’র এক শীর্ষ পরিচালক বলেন, রবি যদি চুক্তি থেকে সরে যাওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেই থাকে, সেটা তারা এশিয়া কাপের এতো কাছাকাছি সময়ে এসে কেন করেছে। দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে ফেরত আসার পর পরই তো ঘোষণা দিতে পারত। এটা রবি মুলত বিসিবিকে বিপদে ফেলার জন্যই করেছে। রবি চেয়েছিল এশিয়া কাপের এতো কাছে এসে চুক্তি বাতিলের মতো ঝুঁকি বিসিবি নেবে না। রবি’র অন্যান্য সব আবদার বিসিবি মেনে নেবে। কিন্তু বিসিবি সেটা করেনি।

বিসিবি নতুন স্পন্সর কোম্পানীর সঙ্গে চুক্তি করে একটি বিষয় পরিষ্কার করে দিয়েছে। রবি’র সঙ্গে লিখিত চুক্তিতে যা আছে তা রবিকে মেনে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। তা না হলে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত যেতে পারে।

ডেইলি বাংলাদেশ, জেবি/সালি