Alexa ‘৯৯ ভাগ মানুষ পয়ঃনিষ্কাশন সুবিধার আওতায় এসেছে’

ঢাকা, শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৪ ১৪২৬,   ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪০

‘৯৯ ভাগ মানুষ পয়ঃনিষ্কাশন সুবিধার আওতায় এসেছে’

 প্রকাশিত: ০৭:৪৪ ২৩ মার্চ ২০১৮   আপডেট: ১৪:০৩ ২৩ মার্চ ২০১৮

দেশের ৯৯ ভাগ মানুষ পয়ঃনিষ্কাশন সুবিধার আওতায় এসেছে। এর মধ্যে ৬১ ভাগ মানুষ শতভাগ নিরাপদ পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার আওতায় রয়েছে। স্বাস্থ্যসম্মত পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার সুবিধা নেই এমন জনসংখ্যা গত ৯ বছরে ১ শতাংশের নীচে নেমে এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

বৃহস্পতিবার (২২ মার্চ) জাতিসংঘের সদর দফতরে আন্তর্জাতিক পানি দশকের উদ্বোধনী সভায় বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন তিনি।

জাতিসংঘ মহাসচিবের পানি বিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের প্যানেল সদস্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধি হিসেবে শাহরিয়ার আলম আন্তর্জাতিক পানি দশকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পানি ও পরিবেশ সবসময়ই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রাধিকারের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতৃত্বে বাংলাদেশ সবার জন্য নিরাপদ খাবার পানি ও নিরাপদ পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বৈশ্বিক স্বীকৃতি অর্জন করেছে।

নদী ও পানির অন্যান্য উৎসসমূহের সঠিক ব্যবস্থাপনার বিষয়টিকে আমরা সর্বদা গুরুত্ব দিয়েছি, যা বাংলাদেশের সব উন্নয়নের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পর্কিত। ১৬০ মিলিয়নেরও অধিক মানুষের বাংলাদেশে প্রায় প্রতিটি মানুষের জন্যই নিরাপদ খাবার পানির সংস্থান করা হয়েছে। এখন আমাদের লক্ষ্য ২০২০ সালের মধ্যে সবার জন্য সরাসরি নিরাপদ খাবার পানির সংস্থান নিশ্চিত করা।

প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশে এসডিজি-৬ এর বাস্তবায়নের গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে বলেন, আমাদের সরকার পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনায় ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান- ২১০০’ গ্রহণ করেছে। এছাড়া সরকার লবণাক্ততা প্রতিরোধ, বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ, নদী খননসহ ব্যাপকভিত্তিক পানি সংক্রান্ত প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বিপুল পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করেছে।

তাজিকিস্তানের রাষ্ট্রপতি এবং অন্যান্য দেশের মন্ত্রীবর্গ উচ্চ পর্যায়ের এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। অন্যান্য বক্তার মাঝে ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক তার বক্তব্যে বাংলাদেশের পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন কর্মসূচির সফলতার কথা উল্লেখ করেন। তিনি কক্সবাজারে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন সেবা প্রদানে বাংলাদেশ সরকার ও ইউনিসেফের প্রচেষ্টার কথাও তুলে ধরেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ