Alexa ৪০ বছর পর প্রথম সিজার

ঢাকা, শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৯ ১৪২৬,   ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

হোমনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

৪০ বছর পর প্রথম সিজার

শাহাজাদা এমরান, কুমিল্লা ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৬ ৬ আগস্ট ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কুমিল্লা হোমনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অপারেশন থিয়েটার ছিল না ৪০ বছর ধরে। এ কারণে উপজেলার প্রসূতিদের যেতে হতো কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালসহ বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে।

মঙ্গলবার সকালে ফুটফুটে একটি শিশুর জন্মের মধ্য দিয়ে হাসি ফুটেছে ডাক্তার-নার্সদের মুখে। কারণ এবারই প্রথম সিজার হয়েছে উপজলার একমাত্র সরকারি হাসপাতালে।

শিশুটির মা জোবেদা আক্তার বলেন, আমার ও বাচ্চার অবস্থা ভালো ছিল না। ফ্লুইডের পরিমাণ কমে গিয়েছিল, স্বাভাবিক প্রসবে জটিলতা দেখা দিয়েছিলো। সবাই বেসরকারি ক্লিনিকে সিজার করার কথা বলছিলো। কিন্তু আর্থিক অবস্থার কারণে সরকারি হাসপাতালেই ভর্তি হই। ডাক্তাররাও আশ্বস্ত করেন। অবশেষে সবকিছুই ভালোভাবে হয়েছে। আমার মেয়ে ভালো আছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সরফরাজ হোসেন খান বলেন, প্রসূতির স্বজনদের সম্মতি নিয়েই সিজারের ব্যবস্থা করি। সবার সহযোগিতায় সফলভাবেই প্রথম সিজার করা হয়েছে। রোগীর স্বজন, ডাক্তার-নার্স সবাই খুব খুশি।

ডা. সরফরাজ হোসেন খান বলেন, ১৯৭৯ সালের ১৯ জুলাই প্রতিষ্ঠার পর থেকেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনো অপারেশন থিয়েটার ছিল না। অপারেশন করতে রোগীদের কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হতো। দুই সপ্তাহ আগে অপারেশন থিয়েটারটি প্রস্তুত করা হয়। ছয়জন ডাক্তার, নার্স, ওয়ার্ড বয় সিজারে অংশ নেন।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আরো বলেন, সরকারি হাসপাতালে প্রশিক্ষিত ডাক্তার-নার্সের মাধ্যমে বিনা খরচে সিজার করাতে পেরে জোবেদা আক্তার ও তার পরিবার খুব খুশি। আর ৪০ বছর পর প্রথম অপারেশন করতে পেরে খুশি আমরাও। এখন থেকে উপজেলার রোগীদের দুর্ভোগ পোহাতে হবে না। যেতে হবে না প্রাইভেট ক্লিনিকে, লাগবে না বাড়তি খরচও।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর