৩৬০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ: বাংলাদেশ ব্যাংকের কথা শুনবে আপিল বিভাগ
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=163657 LIMIT 1

ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭,   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

৩৬০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ: বাংলাদেশ ব্যাংকের কথা শুনবে আপিল বিভাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৪ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৪:৫৫ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেড সম্পর্কে জানতে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালকের নিচে নয় এমন কর্মকর্তা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের বক্তব্য জানতে চেয়েছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি তাদেরকে আদালতে হাজির হয়ে এই কোম্পানির বর্তমান অবস্থা, অবসায়ন ইত্যাদি সম্পর্কে জানাতে বলা হয়েছে। রোববার প্রধান বিচারপতি মাহমুদ হোসেন নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

প্রায় ৩ হাজার ৬০০ কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিস লিমিটেডের পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদার (পিকে হালদার) সহ ২০ জনের সব সম্পদ ক্রোক, ব্যাংক হিসাব ও পাসপোর্ট জব্দে গত ২১ জানুয়ারি নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এই ২০ জনের সম্পদের হিসাব ১৫ দিনের মধ্যে আদালতে দাখিলের নির্দেশও দেয় আদালত।

ওই কোম্পানি পরিচালনার জন্য স্বাধীন পরিচালক ও চেয়ারম্যান হিসেবে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ইব্রাহিম খালেদকে নিয়োগ দেন বিচারপতি মোহাম্মদ খুরশিদ আলম সরকারের একক বেঞ্চ। হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করলে আজ আপিল বিভাগ বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা ও খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদকে ডেকে এ আদেশ দেন। আদালতে পি কে হালদারের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম।

পি কে হালদার এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফিন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, এফএএস ফিন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফিন্যান্স কোম্পানিতেও (বিআইএফসি) তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন।

এ সব প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালনকালে তিনি অন্তত ৩ হাজার ৬০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। আত্মসাতের অর্থ বিদেশে পাচারের অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এছাড়া পি কে হালদারের বিরুদ্ধে প্রায় ২৭৫ কোটি টাকা অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়। এ ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ বাদী হয়ে গত ৮ জানুয়ারি মামলা করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এস