.ঢাকা, বুধবার   ২০ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৫ ১৪২৫,   ১৩ রজব ১৪৪০

২ হাজার ৬৭৮ জন রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ

 প্রকাশিত: ১৪:০১ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১৮:৪১ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭

কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশকালে পৃথকভাবে ২ হাজার ৬৭৮ জন রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ ও শিশুকে ফেরত পাঠিয়েছে বিজিবি ও কোস্টগার্ড সদস্যরা। আজ মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর)ভোর সাড়ে ৫টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত পৃথকভাবে এসব রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানো হয় বলে নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খালেদ মাহমুদ।

সীমান্তে নিয়োজিত বিজিবি ও কোস্টগার্ডের বরাত দিয়ে খালেদ মাহমুদ বলেন, আজ ভোর থেকে নাফ নদীর মোহনা, সেন্টমার্টিন, শাহপরীর দ্বীপ, টেকনাফ-উখিয়ার পালংখালী, ধামনখালী, রহমতের বিল, নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম, তুমব্রুসহ বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে রোহিঙ্গারা। এসময় তাদের প্রতিহত করে স্বদেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয় দায়িত্বরত বিজিবি ও কোষ্টগার্ড সদস্যরা।

গত ২৪ আগস্ট মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যে পুলিশ পোস্টে হামলা চালায় সে দেশের একটি বিদ্রোহী গ্রুপ। এতে ১২ পুলিশ সদস্য বহু রোহিঙ্গা হতাহত হয়। এ ঘটনায় মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে অভিযানের নামে সাধারণ মানুষের ওপর হত্যা, ধর্ষণ, বাড়িঘরে আগুনসহ নানা নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে দেশটির সীমান্তরক্ষী, পুলিশ ও সামরিক বাহিনী।এ কারণে প্রতিদিন সেখান থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে আসছে অসংখ্য রোহিঙ্গা। জাতিসংঘের তথ্যমতে, এ পর্যন্ত ৯০ হাজার মানুষ বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। এছাড়াও নাফ নদীর জলসীমানা থেকে শুরু করে স্থল সীমানা পার হয়ে জিরো পয়েন্টে অবস্থান নিয়েছে হাজার হাজার রোহিঙ্গা।এর আগে গত বছরের ৯ অক্টোবরের পর থেকে মিয়ানমারের আরকান রাজ্যে একই ভাবে হামলার ঘটনা ঘটে। ওই সময়েও প্রাণ ভয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আসে প্রায় ৮৭ হাজার রোহিঙ্গা। এরপর আন্তর্জাতিক মহল নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করে মিয়ানমার সরকারের ওপর। কিন্তু,এর কোনও তোয়াক্কা না করে আরকানে ফের সেনা মোতায়েন করে নিরীহ রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা করে দেশটির সেনাবাহিনী ও পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/আর কে