২৫ শতাংশ নারী স্বামীর মার খান

ঢাকা, শুক্রবার   ১০ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৭ ১৪২৬,   ১৬ শা'বান ১৪৪১

Akash

২৫ শতাংশ নারী স্বামীর মার খান

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:০০ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

দেশের প্রতি চারজনে একজন অর্থাৎ ২৫ শতাংশ নারী স্বামীর হাতে মার খান। জানে গেছে, স্বামীর অনুমতি না নিয়ে বাইরে যাওয়া; বাচ্চাদের প্রতি যত্নশীল না হওয়া; স্বামীর সঙ্গে তর্ক করা; যৌন সম্পর্ক করতে অস্বীকৃতি জানানো এবং খাবার পুড়িয়ে ফেলা- এই পাঁচ কারণে ওই নারীরা মার খান বলে জানিয়েছেন। এই নারীদের বয়স ১৫ থেকে ৪৯ বছরের মধ্যে।

সোমবার বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) মাল্টিপল ইন্ডিকেটর ক্লাস্টার সার্ভে ২০১৯-এ এ তথ্য উঠে এসেছে। আগারগাঁওয়ের বিবিএস মিলনায়তনে এ সমীক্ষার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন বিবিএসের পরিচালক মাসুদ আলম। 

বিবিএসের সমীক্ষা অনুযায়ী, যেসব কারণে স্ত্রীকে মারধর করেন স্বামীরা, সেগুলো গুরুতর অপরাধ নয়। লঘু ভুলের জন্য এ ধরনের নির্যাতনের শিকার হন তারা। 

শিশু নির্যাতনের কথাও উঠে এসেছে ওই সমীক্ষায়। এক থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুদের প্রায় ৮৯ শতাংশ সমীক্ষা চলাকালীন আগের এক মাসে অন্তত একবার শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে। শিশুদের শৃঙ্খলাজনিত কারণে মারধর, বকাঝকা, ধমক—এসব বিষয় আমলে আনা হয়েছে।

সারাদেশের ৬১ হাজার ২৪২টি পরিবারের কাছে ৩৩ ধরনের তথ্য নিয়ে এই জরিপ করা হয়েছে। ২০১৯ সালের ১৯ জানুয়ারি থেকে ১ জুনের মধ্যে এই সমীক্ষা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ