২১শ’ কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছে ঘোড়াশাল-পলাশ ইউরিয়া সার কারখানা 

ঢাকা, শুক্রবার   ১০ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৭ ১৪২৬,   ১৬ শা'বান ১৪৪১

Akash

২১শ’ কোটি টাকা ঋণ পাচ্ছে ঘোড়াশাল-পলাশ ইউরিয়া সার কারখানা 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৫১ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২১:৩২ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতাভুক্ত প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় কথা বলেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন

শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতাভুক্ত প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় কথা বলেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন

ঘোড়াশাল-পলাশ ইউরিয়া ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরির জন্য এইচএসবিসি ও জাপান ব্যাংক অব ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন ২১শ’ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে। আগামী ৯ মার্চ এই ঋণের টাকা ছাড় করা হবে।

বৃহস্পতিবার শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতাভুক্ত প্রকল্পগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় একথা জানানো হয়। শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার।

সভায় শিল্পমন্ত্রী বলেন, খুলনার লবণচরায় অবস্থিত কুরাইশি স্টিল লিমিটেডের সরকারি অংশের শেয়ার শিল্প মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশনকে (বিএসইসি) না জানিয়ে বিক্রি ও উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধের বিষয়ে আইনি দিকগুলো পর্যালোচনার জন্য কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সব শিল্প এলাকা ও বন্দরে বিএসটিআই’র অবকাঠামো ও কার্যক্রম সম্প্রসারণের নির্দেশ দিয়ে শিল্পমন্ত্রী বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন কর্পোরেশন ও প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রকল্পের কাজ কাঙ্ক্ষিত গতিতে এগুচ্ছে না। এ সময় তিনি মন্ত্রণালয় থেকে প্রকল্পগুলোর তদারকি কার্যক্রম আরো জোরদারের আহ্বান জানান।

প্রকল্প বাস্তবায়নে কোনো সমস্যা থাকলে সেগুলো লুকিয়ে না রাখার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, যেকোনো সমস্যা সমাধানে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করা হবে।

করোনাভাইরাসে বাণিজ্যে প্রভাব প্রসঙ্গে তিনি বলেন, চীনে করোনাভাইরাসের বিস্তারের কারণে সারা পৃথিবীতে বাণিজ্য বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। দেশে শিল্পের কাঁচামালের কোন ঘাটতি না হয় সে বিষয়ে সরকার কাজ করছে।

পর্যালোচনা সভায় জানানো হয়, সাভার চামড়া শিল্পনগরীর ইটিপি’র অনলাইন মনিটরিং ব্যবস্থা স্থাপনের কাজ শেষ পর্যায়ে আছে। এ সময় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান থেকে ইটিপি’র অপারেশন ম্যানুয়েল বুঝে নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়। এছাড়া যারা ক্রোম বর্জ্য নিয়ম অনুসারে ছাড়ছে না, তাদের শনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া ও কঠিন বর্জ্য চুরি করে কেউ নিয়ে যেতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকার বিষয়ে সভায় নির্দেশনা দেয়া হয়।

সভায় চিনি শিল্পের উন্নয়নে থাইল্যান্ডের স্যুটেক ও নেদারল্যান্ডসের ভিএসএস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কনসালটেন্সি বিভি-এই দু’টি কোম্পানির প্রস্তাবনাগুলো নিয়ে আলোচনা হয়। পাশাপাশি বিএসটিআই’র সক্ষমতা বৃদ্ধি ও বিভিন্ন দেশের মান নির্ণায়ক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পারস্পরিক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএস/আরএইচ