‘২০ বছর পর ঈদবস্ত্র বিতরণের মানুষ পাওয়া যাবে না’

ঢাকা, শুক্রবার   ২১ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৭ ১৪২৬,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

‘২০ বছর পর ঈদবস্ত্র বিতরণের মানুষ পাওয়া যাবে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৪৬ ২২ মে ২০১৯   আপডেট: ১৯:৫১ ২২ মে ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, বাংলাদেশ যেভাবে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, আশা করি ২০ বছর পর ঈদের কাপড় দেয়ার মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না।

বুধবার রাজধানীর রমনা ও মতিঝিলে অসহায় ও দুস্থ মানুষদের মধ্যে ঈদবস্ত্র উপহার দেয়ার সময় এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় ২ হাজার ৭শ টি শাড়ি, লুঙ্গি, পাঞ্জাবি ও ছোট বাচ্চাদের পোশাক বিতরণ করেন ডিএমপি কমিশনার। ডিএমপির রমনা ও মতিঝিল বিভাগ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এ সময় ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা জানিয়ে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, প্রত্যেক ঈদ এলে আমরা ঈদবস্ত্র নিয়ে আপনাদের পাশে দাঁড়াই। শীত এলে এমনিভাবে আমরা ঈদবস্ত্র দিয়ে থাকি। কারণ আমরা বিশ্বাস করি আমরা জনগণের পুলিশ, আপনারা আমাদের অত্যন্ত আপনজন, আপনাদের প্রতি আমাদের রয়েছে শ্রদ্ধা- ভালোবাসা ও দায়বদ্ধতা। 

তিনি বলেন. আপনাদেরকে ভালোবেসে, ভালো সেবা দিয়ে আপনাদের ভালোবাসা অর্জন করতে চাই। ঈদ তখনই স্বার্থক হবে যখন আপনাদের গায়ে নতুন কাপড় উঠবে ও ঈদের দিন ভালো খাবেন। এটিই ইসলামের কথা। 

ডিএমপি কমিশনার সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, মাদক আমাদের সন্তান, সমাজ ও রাষ্ট্রকে ধ্বংস করছে। এটি ক্যান্সার থেকে ভয়াবহ। এ মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন। আপনার চারপাশে লক্ষ্য রাখুন, মাদকের সম্পর্কে কোন তথ্য পেলে নির্ভয়ে পুলিশকে দিন। আপনার পরিচয় গোপন রাখা হবে।

তিনি আরো বলেন, রমজানের ১৬ দিনে রাজধানীতে উল্লেখযোগ্য কোন অপরাধ সংঘটিত হয়নি। ঈদ উপলক্ষে বাস টার্মিনাল, রেল স্টেশন ও লঞ্চ টার্মিনাল কেন্দ্রিক রয়েছে পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডিএমপি অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সিটিটিসি) মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্তি পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপস্) কৃষ্ণ পদ রায়, যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (ট্রান্সপোর্ট) মো. আব্দুল কুদ্দুস আমিন, যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (অপারেশন) মো. মনির হোসেন, রমনা বিভাগের ডিসি মো. মারুফ হোসেন সরদার, মতিঝিল বিভাগের ডিসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনসহ ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/জেডআর