২০১৯ সাল মাতাবে ল্যাপটপগুলো

ঢাকা, সোমবার   ০৬ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

২০১৯ সাল মাতাবে ল্যাপটপগুলো

ফিচার ডেস্ক

 প্রকাশিত: ১১:২৪ ৩ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১২:৫৪ ৩ জানুয়ারি ২০১৯

লেনোভো ইয়োগা ৯০০ এস। ছবি: ইন্টারনেট

লেনোভো ইয়োগা ৯০০ এস। ছবি: ইন্টারনেট

স্মার্টফোনের পাশাপাশি প্রতিবছর বৈচিত্র্য রকমের ল্যাপটপ বাজারে আসে। তারমধ্যে ২০১৮সালে সবচেয়ে বেশি নজর কেড়েছে হাইব্রিড বা টু-ইন-ওয়ান। ধীরে ধীরে ল্যাপটপগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়ছে। কারণ, এই ল্যাপটপগুলো চাইলে ট্যাবলেট হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। ধারণা করা হচ্ছে, এবছরও ল্যাপটপের বাজার দখলে থাকবে হাইব্রিড-এর! যে ল্যাপটপগুলো মাতাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে, সেগুলো নিয়ে ৩ পর্বের ধারাবাহিক আয়োজনের আজ প্রথম পর্ব—

মাইক্রোসফট সারফেস বুক টু

এই ল্যাপটপটির ইউনিক ফিচার হচ্ছে, অসাধারণ ডিসপ্লে ও গেমিংয়ের জন্য উপযোগী শক্তিশালী গ্রাফিকস প্রসেসিং ইউনিট (জিপিইউ)।  ১ দশমিক ৯ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর ইন্টেল কোর-আই সেভেন প্রসেসরসমৃদ্ধ ল্যাপটপটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ইন্টেল ইউএইচডি গ্রাফিকস ৬২০ ও এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ১০৬০ গ্রাফিকস প্রযুক্তি। ১৬ গিগাবাইট এলপিডিডিআরথ্রি র‌্যাম ও ৫১২ গিগাবাইট বিল্ট-ইন স্টোরেজের ডিভাইসটিতে রয়েছে ১৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে। যার আসপেক্ট রেশিও ৩:২, কন্ট্রাস্ট রেশিও ১৬০০: ১ ও রেজল্যুশন ৩২৪০–২১৬০ (২৬০ পিপিআই)।

মাইক্রোসফট সারফেস প্রো ফোর

পাতলা ও হালকা এই ল্যাপটপটি বাজারে তুমুল জনপ্রিয়। এতে রয়েছে ২ দশমিক ৪ গিগাহার্টজ ডুয়াল কোর ইন্টেল কোর-আই ফাইভ প্রসেসর। আরো রয়েছে ইন্টেল এইচডি গ্রাফিকস ৫২০ প্রযুক্তি। ৮ গিগাবাইট এলপিডিডিআরথ্রি র‌্যাম ও ২৫৬ গিগাবাইট বিল্ট-ইন স্টোরেজ পাওয়া যাবে এ ডিভাইসে। এর ডিসপ্লের আকার ১২ দশমিক ৩ ইঞ্চি, যার রেজল্যুশন ২৭৩৫–১৮২৪, কন্ট্রাস্ট রেশিও ১৩০০:১ ও আসপেক্ট রেশিও ৩:২। এই ল্যাপটপের কিবোর্ড ও স্টাইলাসের পারফরম্যান্সও অনেক ভালো।

লেনোভো ইয়োগা ৯০০ এস

উপরের দুটো মডেলের চাইতে এটি বেশ আকর্ষণীয়। এই ল্যাপটপে রয়েছে টুইস্ট অ্যান্ড বেন্ড সুবিধা। ১ দশমিক ১ গিগাহার্টজ ডুয়েল কোর ইন্টেল কোর-এম ফাইভ প্রসেসর রয়েছে এতে। আরো রয়েছে ইন্টেল এইচডি গ্রাফিকস ৫১৫ প্রযুক্তি। ৪ গিগাবাইট এলপিডিডিআরথ্রি র‌্যাম ও ১২৮ গিগাবাইট বিল্ট-ইন স্টোরেজ পাওয়া যাবে এ ডিভাইসে। এর মাল্টি-টাচ সুবিধাসম্পন্ন ফুল এইচডি আইপিএস ডিসপ্লের আকার ১২ দশমিক ৫ ইঞ্চি, যার রেজল্যুশন ১৯২০–১০৮০।

ডেইলিবাংলাদেশ/এনকে