১৭ মে খুলছে না বিশ্ববিদ্যালয়ের হল 

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১,   আষাঢ় ২ ১৪২৮,   ০৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

১৭ মে খুলছে না বিশ্ববিদ্যালয়ের হল 

শিক্ষাঙ্গন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৪৩ ৫ মে ২০২১   আপডেট: ১৮:১৬ ৫ মে ২০২১

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে কি না, তা ঠিক করতে বৈঠকে বসেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা। বুধবার অনলাইনে এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে কি না, তা ঠিক করতে বৈঠকে বসেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা। বুধবার অনলাইনে এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর কয়েক দফায় ছুটি বাড়ানো হয়। পরে গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষে দিকে শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি ঘোষণা দেন ২৪ মে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়া হবে। এর আগে ১৭ মে আবাসিক হলগুলো খুলে দেয়ার কথাও বলেন তিনি। 

তাই ঢাবি, গুচ্ছতে ২০ বিশ্ববিদ্যালয়, তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার আবেদন গ্রহণ শুরু করেছে। 

কিন্তু দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের মেয়াদ শেষ হলেও একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে তা বাড়ানো হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে পূর্ব ঘোষিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে কি না তা নিয়ে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। এই সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে কি না, তা ঠিক করতে বৈঠকে বসেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা। বুধবার অনলাইনে এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়।     

বৈঠকে বর্তমান পরিস্থিতিতে কি করা উচিত তা নিয়ে তৈরি হয় দ্বিধাবিভক্তি। ফলে পূর্বঘোষিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৭ মে আবাসিক হল খুলে দেয়া সম্ভব হচ্ছে না বলে একাধিক ভিসি জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে আগামী জুন থেকে শুরু হওয়া বিভিন্ন স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ সালের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পূর্ব নির্ধারিত তারিখে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না বলেও জানা যায়।

আরো জানা গেছে, বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে অনলাইনে পরীক্ষা নেয়া যায় কি না তা নিয়েও বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। বিশ্ববিদ্যালয় খোলা এবং অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে আগামীকাল বৃহস্পতিবার আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

বৈঠকে উপস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বর্তমান অবস্থা এবং ভবিষ্যৎ করণীয় নিয়ে উপাচার্যদের মধ্যে বৈঠক হয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের খোলার বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এখন পর্যন্ত পূর্বের সিদ্ধান্ত বহাল রয়েছে।

উপাচার্য পরিষদের সদস্য অধ্যাপক মুনাজ আরো বলেন, আগামী ১৬ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানো হয়েছে। লকডাউন বাড়ানোর পর আমাদের উপাচার্যদের মধ্যে পুনরায় বৈঠক হবে। তখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া যাবে। এছাড়া সরকারের সিদ্ধান্তের বিষয়টিও রয়েছে। লকডাউন পুনরায় বাড়ে কিনা সেটিও বিবেচনায় রয়েছে। এছাড়া করোনা পরিস্থিতি, টিকা কার্যক্রমসহ করোনাকালীন শিক্ষাকার্যক্রম নিয়ে আজকের বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম