Alexa হোটেলকক্ষে অভিনেত্রীকে যেভাবে যৌন নির্যাতন করেন হারভে উইন্সটেন

ঢাকা, শনিবার   ২০ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৫ ১৪২৬,   ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪০

হোটেলকক্ষে অভিনেত্রীকে যেভাবে যৌন নির্যাতন করেন হারভে উইন্সটেন

 প্রকাশিত: ১৫:১২ ২১ অক্টোবর ২০১৭   আপডেট: ১৫:২৬ ২১ অক্টোবর ২০১৭

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

এবার হলিউড মুঘল হারভে উইন্সটেনের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনলেন কানাডার অভিনেত্রী এরিকা রোজেনবাম। তিনি বলেছেন, একবার তাকে হোটেলের বাথরুমে জোর করে নিয়ে যান উইন্সটেন। তার কাঁধ আঁকড়ে ধরেন। তার সামনেই অনৈতিক কাজ শুরু করেন, যা ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। ক্যারিয়ার গড়ার শুরুর দিকে তিনি এমন আচরণের শিকার হয়েছিলেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিজনেস ইনসাইডার।

এতে বলা হয়, এরিকা রোজেনবাম কথা বলেছেন দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসের সাংবাদিক যোডি ক্যান্টরের সঙ্গে। এতে উইন্সটেনের হাতে কিভাবে বছরের পর বছর যৌন হয়রানির শিকার হয়েছিলেন এবং আবেগতাড়িত করা হয়েছে তা নিয়ে তিনি কথা বলেছেন।

কানাডার টরোন্টোতে এক চলচ্চিত্র উৎসবে উইন্সটনের এক সহকারী তাদের সাক্ষাতের আয়োজন করেছিলেন। তখন এরিকা রোজেনবাম ২৪/২৫ বছর বয়সী টগবগে যুবতী। কয়েক বছর আগে তিনি উইন্সটেনের সঙ্গে তার প্রথম সাক্ষাত হয়েছিল এক পার্টিতে। সেখানেই উইন্সটেন তার কাছ থেকে যৌন সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করেছিলেন।

ওই সাক্ষাতের আগে এরিক রোজেনবামকে একটি টেক্সট ম্যাসেজ পাঠিয়েছিলেন উইন্সটেনের ওই সহকারী। তাতে ওই সহকারী বলেছিলেন, উইন্সটেন টাইট শিডিউলের মধ্যে আছেন। তাই তিনি রোজেনবামের সঙ্গে তার হোটেল কক্ষেই সাক্ষাত করতে চান। নিউ ইয়র্ক টাইমসের অনলাইনে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে রোজেনবাম বলেছেন, আমার মনে হয়েছিল সেখানে যাওয়া ঠিক হবে না। তারপরও আমি গেলাম। কারণ, আমার এমন অবস্থানে থাকলে আপনিও যেতেন। ওই সময় না বলাটা আমার জন্য উপযোগী ছিল না।

রোজেনবাম বলেন, তিনি হোটেলে পৌঁছলেন। উইন্সটেনের সহকারী দরজা খুলে দিয়ে চলে গেলেন। এ কথা বলতে বলতে এরিকা রোজেনবামের কণ্ঠ স্তব্ধ হয়ে আসে। তিনি বলতে থাকেন এরপর যা ঘটেছে তা জটিল, কঠিন।

রোজেনবাম বলেন, কক্ষের দরজা খুলে দিতেই তার ভিতর থেকে আহ্বান জানালেন উইন্সটেন। এ সময় তার পরনে কোনো প্যান্ট ছিল না। আমি শুধু বলতে পারি, তিনি এ সময় শুধু একটি শার্ট পরা ছিলেন। এমন অবস্থায় থাকার জন্য তিনি রোজেনবামের কাছে ক্ষমা চান। তিনি তাকে বলেন, তার শিডিউল ঠিক রাখতে দ্রুত কাজ করতে হচ্ছে। তিনি গোসল করবেন।

রোজেনবাম বলেন, এ সময় উইন্সটেনের শার্টটি শুধু তার কোমড় পর্যন্ত ছিল। নিচে কিছুই ছিল না। এ অবস্থায় উইন্সটেন তাকে বলেন, তিনি যখন গোসল সারবেন তখন সেখানে গিয়ে আলোচনা চালাতে রাজি কিনা রোজেনবাম। কারণ, তিনি ভীষণ ব্যস্ত। রোজেনবাম জবাবে বলেন, আপনি খুব ব্যস্ত। আমরা না হয় পরে আলোচনা করে নেবো। এই বলে হোটেল কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন রোজেনবাম। এ সময় উইন্সটেন ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। তিনি রোজেনবামকে বলেন, এখানে মাত্র একটি মিনিট দাঁড়াও। নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেয়া ভিডিও সাক্ষাতকারে এরিক রোজেনবাম এ কথা বলতে বলতে কেঁদে ফেলেন।

বলেন, এ সময় উইন্সটেন তাকে তার বাথরুমে নিয়ে যান। আমি মনে করতে পারছি না ওই সময় আমি কিছু বলেছিলাম কিনা। তবে কথা বলতে আমি তখন খুব ভয় পাচ্ছিলাম। সাক্ষাতকারের এ পর্যায়ে কাহিনীটি গ্রাফিক হিসেবে উপস্থাপন করা হয়। তাতে রোজেনবাম বলেন, তিনি আমাকে কাঁধের পিছন থেকে জড়িয়ে ধরলেন। আমাকে সামনের আয়নার দিকে তাকাতে বললেন। আমি তাকে বললাম, আপনি নিজের দিকে তাকান।

রোজেনবাম বলেন, উইন্সটেন তখন নিজে নিজেই আমার পিছনে দাঁড়িয়ে মাস্টারবেটিং শুরু করে। তিনি পিছন থেকে আমাকে জড়িয়ে ধরেছিলেন। কাঁধের ওপর দিয়ে আমার মুখের দিকে তাকিয়ে ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই