Alexa হুয়াওয়ে ও মেংয়ের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের মামলা

ঢাকা, শনিবার   ২৪ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ১০ ১৪২৬,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

হুয়াওয়ে ও মেংয়ের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের মামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

 প্রকাশিত: ২৩:২৬ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২৩:২৬ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

চীনা টেলিকম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে’র প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা মেং ওয়াংঝু ও এর অধীনে আরো দুটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রতারণাসহ একাধিক অভিযোগে ফৌজদারি মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। 

দেশটির বিচার বিভাগ হুয়াওয়ে ও মেং’য়ের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগে জানিয়েছে, তারা ইরানের ওপর আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করেছে ও ব্যাংকগুলোকে তাদের কার্যাবলী সম্পর্কে ভুল তথ্য প্রদান করেছে। খবর- বিবিসি।

এছাড়াও দেশটির বিচার বিভাগ হুয়াওয়ে ও মেং’য়ের বিরুদ্ধে পৃথক আরেকটি অভিযোগ দায়ের করেছে। এতে বলা হয়েছে, তারা মার্কিন কোম্পানি ‘টি-মোবাইল’ এর কাছ থেকে তাদের রোবটিক প্রযুক্তি চুরি করেছে। তবে হুয়াওয়ে এ ধরনের সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

গেল ১ ডিসেম্বর হুয়াওয়ের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা মেং ওয়াংঝু কানাডার একটি বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার হন। যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ অনুরোধে কানাডা কর্তৃপক্ষ তাকে গ্রেফতার করে।  যুক্তরাষ্ট্রে হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় প্রতিষ্ঠানটির এই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যাংকিং প্রতারণা, বিচারে বাধা ও প্রযুক্তি চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে।

এদিকে ধারনা করা হচ্ছে, মেং’কে গ্রেফতারের এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীনের চলমান বাণিজ্যিক উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পেতে। এক বিবৃতিতে হুয়াওয়ে বলছে, কোম্পানিটির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো জেনে তারা হতাশ হয়েছে। কোনো ধরনের আইনের লঙ্ঘন ঘটেনি বলে জানিয়েছে হুয়াওয়ে। এমনকি মেংয়ের কোনো ভুল কর্মকাণ্ডের ব্যাপারেও জানে না চীনা এই প্রতিষ্ঠান।

অভিযোগে বলা হয়েছে, দুটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ডিভাইস ইউএসএ ও স্কাইকম টেকের মাধ্যমে ইরানের সঙ্গে গোপন বাণিজ্য করেছেন মেং ওয়াংঝু। এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র এবং একটি বৈশ্বিক ব্যাংককে ভুল তথ্য দিয়েছিলেন তিনি।

ভ্যানকুভারে মেং ওয়াংঝুকে গেল ১ ডিসেম্বর গ্রেফতার করা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাকে ওয়াশিংটনের কাছে হস্তান্তর করতে কানাডার প্রতি আহ্বান জানায়। জামিনে মুক্তি পেলেও বর্তমানে কানাডায় বিশেষ নজরদারিতে রয়েছেন তিনি।

মেং গ্রেফতার হওয়ার পর হুয়াওয়ে এক বিবৃতিতে জানায়, নির্বাহী এই কর্মকর্তা কোনো ধরনের ভুল কাজ করেছেন কি-না সে ব্যাপারে তারা অবগত নন। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ব্যাপারে একেবারে নগন্য তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে। মেংয়ের কোনো ভুল কাজের ব্যাপারে কোম্পানির ধারণা নেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী

Best Electronics
Best Electronics