Alexa হাবিপ্রবির প্রথম দিনের ভর্তি পরীক্ষা শেষ

ঢাকা, রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯,   পৌষ ১ ১৪২৬,   ১৮ রবিউস সানি ১৪৪১

হাবিপ্রবির প্রথম দিনের ভর্তি পরীক্ষা শেষ

হাবিপ্রবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৪৮ ২ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৭:৪৯ ২ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবিঃ ডেইলি বাংলাদেশ

ছবিঃ ডেইলি বাংলাদেশ

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষে প্রথম বর্ষে ১ম দিনের পরীক্ষা শেষ হয়েছে। 

এর আগে সোমবার সকাল নয়টায় সোশ্যাল সায়েন্স অ্যান্ড হিউম্যানিটিস অনুষদের (ডি ইউনিট) পরীক্ষার মধ্যদিয়ে এবারে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। 

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সকাল ৯টা থেকে ১০.৩০টা (ডি-১), ১১.০০টা থেকে ১২.৩০টা (ডি-২), ১.৩০ থেকে ৩.০০টা (ডি-৩) এবং বিকেল ৩.৩০ থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত (ডি-৪) ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হয়। পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোনসহ সব ধরনের ইলেকট্রনিক যন্ত্র নিষিদ্ধ ছিল। 

বিষয়টি নিশ্চিত করতে ভর্তিচ্ছুদের হলে ঢোকার আগে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশি করা হয়। নিরাপত্তার জন্য মোতায়েন ছিল ৬ শতাধিক আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের রোভার স্কাউট ও বিএনসিসির বিপুলসংখ্যক সদস্য এ কাজে সহায়তা করে। এ ছাড়া পরীক্ষা চলার সময় প্রস্তুত ছিলো ভ্রাম্যমাণ আদালত।

পরীক্ষা কেন্দ্রের পরিবেশ দেখতে সকাল সাড়ে ১১ টায় কেন্দ্র পরিদর্শনে যান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম। 

ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্রের বিভিন্ন কক্ষ পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিবারের ন্যায় এবারো কঠোর নিরাপত্তার মাধ্যমে পরীক্ষা চলছে। অরাজকতা রুখতে তিন স্তরের নিরাপত্তাসহ পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। বিভিন্ন কারনে এবারের পরীক্ষা সবার শেষে অনুষ্ঠিত হলেও শিক্ষার্থীদের যথেষ্ট উপস্থিতি রয়েছে। প্রায় ৮০ শতাংশ শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এবারেই প্রথম অভিভাবকদের জন্য বসার ব্যবস্থার পাশাপাশি কিছু ভ্রাম্যমাণ টয়লেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে হাবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখা, রোটারেক্ট ক্লাব, ডিবেটিং সোসাইটিসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের কর্মীরা পরীক্ষার্থীদের সহায়তার জন্য তথ্যকেন্দ্র স্থাপন করেছেন। পরীক্ষার হল ও আসন খুঁজে বের করাসহ প্রয়োজনীয় বিভিন্ন তথ্যসেবা ছিচ্ছেন তারা। 

এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই হাজার পাঁচটি আসনের বিপরীতে ৯৬ হাজার ৭২৩ জন আবেদন করেছে। প্রতি আসনের বিপরীতে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে ৪৮ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী।

৩ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দিন কৃষি অনুষদ (‘এ’ ইউনিট), ৪ ডিসেম্বর ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের (‘বি’ ইউনিট) পরীক্ষা হবে। ৫ ডিসেম্বর বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ (‘সি’ ইউনিট) এবং আর্কিটেকচার বিভাগের ড্রয়িং পরীক্ষার মাধ্যমে এবারের ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম