স্যানিটাইজার থেকে লাগা আগুনে দগ্ধ ডা. রাজিব মারা গেছেন

ঢাকা, বুধবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১৫ ১৪২৭,   ১২ সফর ১৪৪২

স্যানিটাইজার থেকে লাগা আগুনে দগ্ধ ডা. রাজিব মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৯:৫৬ ২৮ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১১:৩৫ ২৮ জুলাই ২০২০

চিকিৎসক রাজিব ভট্টাচার্য ও অনূসূয়া ভট্টাচার্য। ছবি: সংগৃহীত

চিকিৎসক রাজিব ভট্টাচার্য ও অনূসূয়া ভট্টাচার্য। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর হাতিরপুলে জীবাণুনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার থেকে লাগা আগুনে দগ্ধ চিকিৎসক রাজিব ভট্টাচার্য (৩৬) মারা গেছেন।

ছয়দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে মঙ্গলবার সকালে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে মারা যান তিনি। চিকিৎসক ডা. রাজিব ভট্টাচার্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) নিউরোসার্জারি বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। দগ্ধ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। ডা. রাজিবের শরীরের ৮৭ শতাংশ এবং তার স্ত্রীর ২০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

ডা. রাজিবের স্ত্রী অনূসূয়া ভট্টাচার্যের অবস্থাও গুরুতর। তিনি শ্যামলি সেন্ট্রাল মেডিকেল কলেজে চক্ষু বিভাগের রেজিস্ট্রার হিসেবে কর্মরত।

জানা গেছে, ডা. রাজিব ও অনূসূয়া দম্পতি রাজধানীর হাতিরপুল ইস্টার্ন প্লাজার পেছনের একটি বাড়ির তৃতীয় তলায় ভাড়া থাকেন। গত তিন সপ্তাহ ধরে তাদের পাঁচ বছর বয়সী একমাত্র মেয়ে রাজশ্রী ভট্টাচার্য কুমিল্লার দেবীদ্বারে দাদা বাড়িতে রয়েছে।

সূত্র বলছে, রাতে রাজিব জীবাণুনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার একটি বড় বোতল থেকে ছোট বোতলে ঢালছিলেন। তখন কিছু স্যানিটাইজার নিচে পড়ে যায়। এ সময় মুখে থাকা সিগারেট অথবা মশার কয়েল থেকে আগুন ধরে যায়। এতে রাজিব দগ্ধ হন। তাকে বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ হন স্ত্রী অনূসূয়াও।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে/টিআরএইচ