Alexa স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সবচেয়ে বড় সাফল্যের খবর আসছে

ঢাকা, সোমবার   ২২ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৭ ১৪২৬,   ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪০

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সবচেয়ে বড় সাফল্যের খবর আসছে

ডেস্ক নিউজ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৫৪ ১২ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ১২:২৬ ১২ জুলাই ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন সরিয়ে নেয়া, কানাডার আদালতে ঘুষের মামলা, দেশব্যাপী নানা নেতিবাচক প্রচারণা, সব সমালোচনার মুখে লাগাম পরিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে দেশের সবচে বড় প্রকল্প-পদ্মা সেতু দৃশ্যমান এখন দুই কিলোমিটারের বেশি।

শিঘ্রই পদ্মা সেতুর সবচে বড় সাফল্যের খবরটি আসতে যাচ্ছে আর দু এক দিনের মধ্যে। সেতুর সবচে চ্যালেঞ্জিং কাজ পাইল ড্রাইভিং কাজ শতভাগ শেষ হবে এ সময়ের মধ্যে। ফলে পদ্মা সেতুর নকশা জটিলতার কার্যকর সমাধান মেলার পাশাপাশি কাজের গতিতে দৃশ্যমান পরিবর্তন আসবে বলে মনে করছেন প্রকল্প পরিচালক।

২০১৫ সালে পাইলিংয়ের কাজ শুরুর পর সবচে বড় ধাক্কাটি আসে নকশা জটিলতার সৃষ্টি হলে। ২২টি পিলারে নদীর তলদেশে সৃষ্ট জটিলতায় কাজ পিছিয়ে যায়। দেশি বিদেশি বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান মিলে দেড় বছরের বেশি সময় নিয়ে এ সমস্যার সমাধান হয়েছে ছয় মাস আগে। এবার সাফল্যের চূড়ান্ত সুফল পাওয়ার সময়।

পদ্মায় ৪০ টি পিলারে ২৬২ আর ২ পাড়ের ২টি পিলারে ৩২টি মিলে সেতুর মোট পাইল সংখ্যা ২৯৪টি। এর মধ্যে ২৯৩টির ড্রাইভিংয়ের কাজ শেষ। ২৬ নম্বর পিলারে শেষ পাইলটিও অর্ধেকের বেশি প্রবেশ করানো হয়েছে নদীর তলদেশে। বাকীটুকুও শেষ হয়ে আসছে দ্রুততম সময়ে।

সেতুটির প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, ওয়েল্ডিংয়ের কাজ শেষ হলে আগামী ১৪-১৫ দিনের মধ্যে পাইলিংয়ের কাজ শেষ হয়ে যাবে।

কাজ এগিয়ে চলছে নতুন নতুন প্রতিবন্ধকতা ডিঙ্গিয়েই। এর মধ্যে প্রাকৃতিক আর কারিগরি নানা জটিলতা তো আছেই। তার সঙ্গে পরিকল্পিত গুজব তৈরি করে পদ্মা সেতুর কাজ বিতর্কিত করার চেষ্টাকে দুঃখজনক বলে মনে করেন প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম।

পাইলের কাজ শেষ হয়ে এলে ৪২টি পিলার তৈরির কাজও শতভাগ শেষ হয়ে আসবে আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যে।

সব অনিশ্চয়তা কাটিয়ে পাইল ড্রাইভিংয়ের কাজ শেষ হওয়ার মধ্য দিয়ে সাফল্যের দুয়ার উন্মোচিত হতে যাচ্ছে। পুরো নদীজুড়ে বিয়াল্লিশটি পিলার দৃশ্যমান হওয়ার দিন আর খুব বেশি দূরে নয়। এভাবেই একটু একটু করে এগিয়ে চলছে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে