স্ত্রীকে হত্যা করেই ফাঁস দেন রাজীব

ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০,   চৈত্র ১৭ ১৪২৬,   ০৬ শা'বান ১৪৪১

Akash

স্ত্রীকে হত্যা করেই ফাঁস দেন রাজীব

ফরিদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৪৫ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ফরিদপুরে স্ত্রী সোনালী বণিক স্মৃতিকে মাথা থেঁতলে হত্যার পর রাজীব বিশ্বাস ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে এ তথ্য জানা গেছে।

সোমবার রাতে শহরের পূর্ব খাবাসপুর মহল্লার লঞ্চঘাটের একটি ভাড়া বাড়ি থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত স্মৃতি গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বাটিকামারী উত্তরপাড়ার খোকন বণিকের মেয়ে। রাজীব একই উপজেলার উজানি ইউপির খালখোলা গ্রামের নিরাঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে। দুই বছর আগে তারা ভালোবেসে বিয়ে করেন। বছরখানেক আগে লঞ্চঘাটের শওকত সিকদারের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেন।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার থানায় হত্যা মামলা করেন স্মৃতির ভাই নিলয় বণিক। মামলায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি দেখানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

রাজীবের মামা বিকাশ বিশ্বাস জানান, ফরিদপুর শহরে টিউশনি করে সংসার চালাতেন রাজীব। তবে তিনি কলেজে শিক্ষকতা করছেন বলে আত্মীয়দের জানাতেন। স্মৃতি ফরিদপুরের সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোর্শেদ আলম জানান, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির সময় স্মৃতির মাথার পেছনে থেঁতলানো দেখা গেছে। শিলপাটার পুতা জাতীয় শক্ত কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। বিছানাতেও রক্ত ছিল।

ওসি আরো জানান, কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে স্মৃতির মাথায় আঘাত করার পরেই তিনি নিহত হন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরপর রাজীব গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর