.ঢাকা, বুধবার   ২০ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ৫ ১৪২৫,   ১৩ রজব ১৪৪০

সৌর সেচের প্রসারে ২০৩ কোটি টাকার অনুদান এডিবির

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ০৫:৫২ ১০ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ০৫:৫২ ১০ আগস্ট ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সৌর সেচের প্রসারে ২০৩ কোটি টাকার সহায়তা দিচ্ছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। এই অর্থ অনুদান হিসেবে দেবে সংস্থাটি। বৃহস্পতিবার এ সংক্রান্ত এক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এই চুক্তিতে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব (ইআরডি) কাজী শফিকুল আযম এবং এডিবির পক্ষে কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ স্বাক্ষর করেন।

অনুষ্টান থেকে জানা যায়, এই অর্থ দিয়ে প্রায় ১৯ দশমিক ৩ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুতের উৎপাদন বাড়বে। এটি দিয়ে পল্লী এলাকায় ২ হাজার সৌরবিদ্যুৎ চালিত সেচপাম্প স্থাপন করা হবে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) অধীনে ১০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতায় বাস্তবায়িত হবে।

আরো জানা যায়, দেশে কমপক্ষে ১ কোটি ১৬ লাখ কৃষক সেচের জন্য তাদের পাম্প চালাতে ডিজেল ব্যবহার করছেন। বছরে ১ মিলিয়ন টন ডিজেল ব্যবহার করা হয়। এসব সৌরপাম্প স্থাপনের ফলে কমে আসবে ডিজেলের ব্যবহার। কমে আসবে ব্যয়। ফলে কম আয়ের কৃষকরা আরো সাশ্রয়ী মূল্যে সেচ নিতে পারবে। ডিজেল পাম্পিং সিস্টেম বদল করে সৌর পাম্প প্রতিস্থাপন করার ফলে ১৭ হাজার ২৬১ টন কার্বনডাই অক্সাইড নির্গমন হ্রাস করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

চুক্তি শেষে কাজী শফিকুল আযম বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে পরিবেশবান্ধব সেচ নিশ্চিত করা হবে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি হিসেবে সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহারের মাধ্যমে সেচপাম্পগুলো পচিালনার ফলে জ্বালানিভিত্তিক উৎপাদিত বিদ্যুতের ওপর চাপ কমবে।

জানা গেছে, অনুদানের গৃহীত প্রকল্পের বাস্তবায়নকারী সংস্থা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে বিআরইবি। এ প্রকল্পের আওতায় গৃহীত কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে- কৃষি সেচের জন্য সোলার ফটোভোল্টিক পাম্পিং সিস্টেমের বিস্তার ও সেচ মৌসুমে গ্রিডের বিদ্যুতের ওপর অতিরিক্ত চাপ কমানো এবং ডিজেল চালিত পাম্প পরিহারের মাধ্যমে দূষিত পদার্থের নির্গমন হ্রাস করা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ