সোনারগাঁওয়ে কাউন্সিলরের নেতৃত্বে হামলা, অন্তঃসত্ত্বাসহ আহত ৭

ঢাকা, সোমবার   ২৭ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৬,   ২২ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

সোনারগাঁওয়ে কাউন্সিলরের নেতৃত্বে হামলা, অন্তঃসত্ত্বাসহ আহত ৭

সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:২৬ ১৬ মে ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও পৌরসভার গোয়ালদীতে বুধবার সকালে এক কাউন্সিলরের নেতৃত্বে হামলায় অন্তঃসত্ত্বাসহ একই পরিবারের সাতজন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় বুধবার রাতে আহত সাজেদা বেগম বাদী হয়ে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। আহতদের সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

থানায় দায়ের করা অভিযোগে বলা হয়েছে, পৌরসভার গোয়ালদী গ্রামের হানিফ মিয়ার জমি বালু দিয়ে পুরোপুরি ভরাট না করেই সোনারগাঁও পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাইম আহম্মেদ রিপনের নেতৃত্বের সিন্ডিকেট অতিরিক্ত টাকা দাবি করে। এ নিয়ে সিন্ডিকেট ও হানিফ মিয়ার মধ্যে বাক-বিতণ্ডা হয়। এরই জেরে বুধবার সকালে সোনারগাঁও পৌরসভার কাউন্সিলর নাইম আহম্মেদ রিপনের নেতৃত্বে আলম, মুজা, মাহিন, শামীম, মাইনউদ্দিন মেম্বার, জাকির ভূইয়াসহ ১০-১৫ জনের একটি দল হানিফ মিয়ার বাড়িতে গিয়ে অতর্কিত হামলা করে।

এ সময় তার স্ত্রী সাজেদা বেগম, বোন জামাই বশিরউদ্দিন ও ভাগিনা কাউসার এগিয়ে এলে তাদের পিটিয়ে আহত করে। পরে হানিফ মিয়ার অন্তঃসত্ত্বা মেয়ে শামীমা ও আরেক মেয়ে সালমা এগিয়ে এলে তাদেরও মারধর করে। এসময় শামীমা ও সালমার শ্লীলতাহানি করে হামলাকারীরা। হামলার সময় বাড়ি-ঘর, দরজা-জানালা, শো-কেস ও আলমারির গ্লাস ভাঙচুর করে।
 
এ ব্যাপারে কাউন্সিলর নাইম আহম্মেদ রিপন বলেন, এ ঘটনা মিথ্যা ও বানোয়াট। এ ঘটনার সঙ্গে আমি জড়িত না। তবে অন্যান্যদের সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। 

সোনারগাঁও থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, হামলার অভিযোগ নেয়া হয়েছে। তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ 

Best Electronics